বাড়তি ভর্তি ফি-র টাকা ফেরত নিয়ে টালবাহানা স্কুলের,প্রধান শিক্ষককে ঘিরে বিক্ষোভে উত্তেজনা বাঁকুড়া মিউনিসিপ্যাল হাইস্কুলে

0
59

নিজস্ব প্রতিনিধি,বাঁকুড়াঃ একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণীতে ভর্তি বাবদ সরকার নির্ধারিত টাকার কয়েকগুণ বাড়তি টাকা নেওয়া হয়েছিল পড়ুয়াদের কাছে। পড়ুয়াদের বিক্ষোভ ও তার জেরে স্কুল শিক্ষা দফতরের হস্তক্ষেপে সেই বাড়তি টাকা পড়ুয়াদের ফেরত দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেয় স্কুল কর্তৃপক্ষ। উচ্চ মাধ্যমিকের ফলাফল প্রকাশের পরেও বাড়তি সেই টাকা ফেরত দেওয়া নিয়ে স্কুল কর্তৃপক্ষ টালবাহানা করায় আবার ছাত্রছাত্রীদের বিক্ষোভে উত্তাল হল বাঁকুড়া মিউনিসিপ্যাল হাইস্কুল। প্রধান শিক্ষককে ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখায় পড়ুয়ারা। পরিস্থিতি সামাল দিতে স্কুলে যেতে হয় বাঁকুড়া সদর থানার পুলিশকেও। একাদশ শ্রেনীতে ভর্তির জন্য বিজ্ঞান ও কলা ও বানিজ্য বিভাগে ভর্তির জন্য সরকারি ও সরকার পোষিত স্কুলগুলিতে নির্দিষ্ট ভর্তি ফি বেঁধে দিয়েছিল স্কুল শিক্ষা দফতর। সেই নির্দেশকে তোয়াক্কা না করে বাঁকুড়া মিউনিসিপ্যাল হাইস্কুল দফতরের বেঁধে দেওয়া ফির কয়েকগুণ টাকা ভর্তির সময় পড়ুয়াদের কাছ থেকে আদায় করার অভিযোগ ওঠে মিউনিসিপ্যাল হাইস্কুলের বিরুদ্ধে। একাদশ থেকে দ্বাদশ শ্রেনীতে ওঠার ক্ষেত্রেও একই ভাবে বাড়তি টাকা আদায় করার অভিযোগ ওঠে ওই স্কুলের বিরুদ্ধে। বিষয়টি জানাজানি হতেই সেসময় বিক্ষোভে ফেটে পড়ে স্কুলের পড়ুয়া ও অভিভাবকরা। স্কুল শিক্ষা দফতর তদন্ত করে সেসময় বাড়তি আদায় করা টাকা পড়ুয়াদের ফেরত দেওয়ার জন্য ওই স্কুল কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেয়। চাপে পড়ে ওই টাকা ফেরতের প্রতিশ্রুতিও দেয় স্কুল কর্তৃপক্ষ। কিন্তু এই ঘটনার এক বছর কেটে গেলেও আজো বাড়তি টাকা ফেরত পায়নি পড়ুয়ারা। পড়ুয়ারা উচ্চ মাধ্যমিক পাসের পরও বাড়তি আদায় করা সেই টাকা দিতে এখন স্কুল কর্তৃপক্ষ টালবাহানা করায় এদিন উচ্চ মাধ্যমিক উত্তির্ণ পড়ুয়াদের ক্ষোভ আছড়ে পড়ে স্কুল চত্বরে। স্কুলে প্রধান শিক্ষককে ঘেরাও করে চলে ব্যাপক বিক্ষোভ। গন্ডগোলের খবর পেয়ে স্কুলে হাজির হয় বাঁকুড়া সদর থানার পুলিশ। স্কুল কর্তৃপক্ষের দাবী পড়ুয়াদের টাকা ফেরত দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে। আদায় করা টাকা স্কুলের নামে গচ্ছিতও রয়েছে। আগামী ২৮ জুন স্কুল পরিচালন সমিতির বৈঠক রয়েছে। সেই বৈঠকের পরই টাকা পড়ুয়াদের ফেরত দেওয়া হবে।

LEAVE A REPLY