হলধর বলরামকে নিয়ে মন্তব্য করে ভাইরাল বর্ধমান জেলা বিজেপির সভাপতি অভিজিৎ তা

0
34

নিজস্ব প্রতিনিধি,বর্ধমানঃ পুরাণে বলরামকে হলধর বলা হত। তিনি লাঙলের ফাল কাঁধে নিয়ে কৃষিকাজ করতেন। ফাল ধরার ফাঁকে তিনি ‘ মাল খেতেন’ বা মদ্যপানে আসক্ত ছিলেন একথা শুনে ধাক্কা লেগেছে সনাতন হিন্দু সেন্টিমেন্টে। অথচ দলের শ্রমজীবী অংশের সভায় ঠিক এমনটাই বলেছেন সভাপতি মহোদয়। এমনিতেই জেলা বিজেপি ধুন্ধুমার গোষ্ঠীকোন্দলে খ্যাতি অর্জন করেছে। তার উপর এই বিতর্ক নতুন সমস্যার জন্ম দিতে পারে।প্রবীণ বিজেপি নেতা সভাপতিকে একহাত নিয়েছেন।এ নিয়ে মুখ খুলেছেন শাসকদলের মুখপাত্রও। কিন্তু ঠিক কী বলেছিলেন অভিজিৎ তা?  তার কথায়- “বলরামদেব প্রাচীনকালে সেচের বন্দোবস্ত করেছিলেন। তাই প্রচুর পরিশ্রম করতেন। সেই কারণে সন্ধ্যাবেলা সুরা পান করতেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিও ক্লিপসে এমনই বলতে শোনা যাচ্ছে বর্ধমান সাংগঠনিক জেলার বিজেপির সভাপতি অভিজিৎ তা কে। ওই সভায় বক্তব্য রাখছিলেন তিনি। ভাইরাল হওয়া ভিডিওতেই তিনি বলছেন, প্রাচীনকালে বলরামদেব সেচের ব্যবস্থা করেছিলেন। তিনি খুব খাটাখাটুনি করতেন। সেই কারণে সন্ধ্যাবেলা সুরা পান করতেন। সুরা পান করলেও নিজেকে ঠান্ডা রেখে ঘুমিয়ে যেতেন। আবার সকাল থেকে কাজ আর কাজ।  শুধু কাজ নিয়েই থাকতেন। তার এই ভাইরাল হওয়া ভিডিও নিয়ে বিপাকে পড়েছেন বিজেপির জেলা নেতৃত্ব। প্রবীণ বিজেপি নেতা নরেশ কোনার বলেন, এমনটা বলা ঠিক হয়নি। উনি এই তথ্য কোথা থেকে পেলেন জানি না। দেবতাদের নিয়ে এমন মন্তব্য করা উচিত নয়। অন্যদিকে তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র দেবু টুডু বলেন, ওরা দেবতাদের কাছাকাছি থাকেন তো,তাই বলেছেন। আসলে ওরা বিকৃতমনস্ক।ওদের নেতা তথাগত রায়ই বলে দিয়েছেন বিজেপি দলটা মণিকাঞ্চনে আসক্ত।

LEAVE A REPLY