ধর্ষণে অভিযুক্ত বিজেপি বিধায়কের ভাইপো,সেই বিধায়ককে পাশে নিয়ে দলের সভাপতির প্রেসমিট ঘিরে বিতর্ক

0
236

জয় লাহা,দুর্গাপুর,২০ এপ্রিলঃ  ধর্ষণকান্ড নিয়ে তোলপাড় গোটা রাজ্য। হাঁসখালি থেকে ভাতার, শান্তিনিকেতন। সরগরম রাজ্য রাজনীতি। প্রতিবাদের ঝড় তুলেছে রাজ্যের শাসক বিরোধী গেরুয়া শিবির। এবার ধর্ষণে অভিযুক্ত খোদ বিজেপি বিধায়কের ভাইপোর গ্রেফতারি নিয়ে বড়সড় প্রশ্ন উঠল। এনিয়ে শিল্পশহর দুর্গাপুরে পোষ্টারও পড়েছে। অন্যদিকে ওই বিধায়ককে পাশে বসিয়ে বিজেপির রাজ্য সভাপতির প্রেসমিট করা নিয়েও বিতর্ক শুরু হয়েছে। ধর্ষণে অভিযুক্ত দুর্গাপুর পশ্চিমের বিজেপি বিধায়ক লক্ষণ ঘড়ুইয়ের ভাইপোকে গ্রেফতারের দাবিতে পোস্টার নিয়ে চাঞ্চল্য দেখা দিয়েছে শিল্পশহরে। শহরের ৪১ নম্বর ওয়ার্ডে রেলস্টেশন সংলগ্ন বাসস্ট্যান্ড এলাকাতে নাগরিক সমাজের নামে ওই পোস্টার লাগানো হয়েছে। ওই পোস্টারে সাদা কাগজের উপর কালো কালিতে লেখা “দুর্গাপুর পশ্চিমের বিজেপি বিধায়ক লক্ষণ ঘড়ুই এর ধর্ষক ভাইপো এখনো ধরা পড়ল না কেন? এখনও তার শাস্তি হলো না কেন? ” দুর্গাপুর নাগরিক সমাজ নামে এই পোস্টার ঘিরে রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে শিল্পশহর জুড়ে। প্রসঙ্গত, বছর দুয়েক আগে কাঁকসার আমলাজোড়া এলাকায় এক নাবালিকাকে ধর্ষনের অভিযোগ ওঠে বিজেপি বিধায়ক লক্ষন ঘড়ুইয়ের ভাইপো সহদেব ঘোড়ুইয়ের ওপর। অভিযোগ উঠতেই রাতরাতি গা ঢাকা দেয় সহদেব। অভিযোগের ভিত্তিতে  পুলিশ তদন্ত শুরু করে। এমনকি লুক আউট নোটিশ জারি হয়। কিন্তু এখনও পর্যন্ত অভিযুক্ত অধরা। আর তাতেই জোরালো প্রশ্ন উঠেছে। এদিকে রাজ্যজুড়ে ধর্ষণকান্ড নিয়ে মঙ্গলবার কোলকাতায় বিজেপির সদর কার্যালয়ে এক প্রেসমিট করেন দলের রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। তখন পাশে ছিলেন বিজেপি বিধায়ক লক্ষন ঘড়ুই। আর তাতেই যেন যজ্ঞে ঘি ঢালার মত অবস্থা শুরু হয় রাজনৈতিক মহলে। শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা। এক সময়ের বিজেপি নেতা কর্নেল দীপ্তাংশু চৌধুরী বিজেপির রাজ্য সভাপতিকে খোঁচা দিয়ে বলেন,” যাকে পাশে বসিয়ে বিভিন্ন ধর্ষণের ঘটনা নিয়ে প্রেসমিট করছেন। তিনি দুর্গাপুর পশ্চিমের বিধায়ক লক্ষন ঘড়ুই। যার ভাইপো ধর্ষণে অভিযুক্ত। আজও অধরা। প্রথমে নিজের দলের কাকা যিনি ধর্ষণে অভিযুক্ত ভাইপোকে আড়াল করছে। তাদের সামলান। তারপর প্রেসমিট করবেন।” অন্যদিকে দুর্গাপুর পশ্চিমের বিধায়ক লক্ষন ঘড়ুই অবশ্য সাফাই দিয়ে বলেন,” আইন আইনের পথে চলবে। কোনরকম আড়াল করা হয়নি। গত লোকসভা ও বিধানসভা নির্বাচনে দুর্গাপুরের মানুষ বিজেপিকে দু হাত তুলে সমর্থন করেছেন। তাতেই তৃণমূলের ভিত নড়ে গেছে। সামনে পুরসভা নির্বাচন। তার আগে রাজনৈতিকভাবে দুর্গাপুরবাসীর সহানুভুতি আদায়ের চেষ্টায় বিজেপির নামে অপপ্রচার করছে।” 

বিশেষ প্রতিনিধি,দুর্গাপুরঃ  দুর্গাপুর পশ্চিমের বিজেপি বিধায়ক লক্ষ্মণ ঘড়ুইয়ের ভাইপো অভিযুক্ত বিজেপি কর্মী সহদেব ঘোড়ুইকে কেন এখনও গ্রেপ্তার করা গেল না তা নিয়ে মঙ্গলবার সকালে দুর্গাপুর শহরের বিভিন্ন জায়গায় পোষ্টার দেখা যায়। গতকাল এই সব পোস্টার দেখে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে শহরে। সরাসরি ঠিক কে বা কারা এই পোষ্টার দিয়েছে তা জানা না গেলেও পোষ্টারের নিচে লেখা রয়েছে দুর্গাপুর নাগরিক সমাজ। এবিষয়ে বিজেপির জেলা সাধারণ সম্পাদক অভিজিৎ দত্ত বলেছেন, ‘এটা দলকে কলুষিত করার চেষ্টা করা হচ্ছে। তাছাড়া আমরা তো তদন্ত প্রভাবিত করার চেষ্টা করি নি। আইন আইনের পথে চলবে। আমরা কখনও বিরোধীতা করি নি।’ প্রসঙ্গত,দু’বছর আগে দলের এক কর্মীর নাবালিকা মেয়েকে ধর্ষণ করার অভিযোগ ওঠে সহদেবের বিরুদ্ধে। ঘটনার পর থেকে এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যায় সহদেব। তারপর থেকেই সে অধরা।  

LEAVE A REPLY