পুরুলিয়ার ছৌ মুখোশ জি আই তকমা পেল,৩১ জন শিল্পীকে শংসাপত্র

0
35

সাথী প্রামানিক, পুরুলিয়া: পুরুলিয়ার ছৌ নৃত্য বিশ্ব বন্দিত আগেই হয়েছে। পেয়েছে ঐতিহ্যবাহী তকমা। এবার ছৌ মুখোশ জি আই তকমা পেল। পশ্চিমবঙ্গ সরকারের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ও জৈব প্রযুক্তি দফতরের উদ্যোগে এবং পুরুলিয়া জেলা প্রশাসনের তত্ত্বাবধানে বাঘমুন্ডি ব্লকের অন্তর্গত চড়িদা গ্ৰামের ছৌ – মুখোশ প্রস্তুতকারী শিল্পীদের জিওগ্রাফিকাল ইন্ডিকেশন  (জি আই) নিবন্ধীকৃত ব্যবহারকারী শংসাপত্র তুলে দেওয়া হল। জেলা তথ্য ও সংস্কৃতি দফতরের সভা কক্ষে আনুষ্ঠানিকভাবে এই শংসাপত্র তুলে দেওয়া হয়।  ৩১ জন শিল্পীর জন্য জি আই ৫৬৫ নম্বর অনুমোদিত হয়। এর ফলে আন্তর্জাতিক মানের এই ছৌ মুখোশ নকল যেমন হবে না তেমনই এই পেশার সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিদের ব্যবসার পরিসর বিশ্বব্যাপী হয়ে গেল। পৃথিবীর যে কোনও প্রান্ত থেকে আগ্রহী ক্রেতা উল্লেখিত জি আই নম্বর দিয়ে সার্চ করলেই ৩১ জন শিল্পীর তৈরি মুখোশ দেখতে ও ক্রয় করতে পারবেন। এছাড়া অনলাইন প্লাটফর্মে জি আই ট্যাগ করে বিপণন করার সুযোগ পেয়ে যাবেন শিল্পীরা। জেলা তথ্য ও সাংস্কৃতিক আধিকারিক সিদ্ধার্থ চক্রবর্তী বলেন, “ছৌ মুখোশ ব্যবসার নব জাগরণ বলা যেতেই পারে। আগামী দিনে আবেদনের ভিত্তিতে আরও বেশি শিল্পী জি আই ট্যাগিং করার সুযোগ সুবিধা পাবেন।”এবার জেলার অন্যতম কুটির শিল্প সাবাই ঘাসের গৃহ সজ্জা সামগ্রী এই তকমা পেতে চলেছে বলে জেলা তথ্য ও সাংস্কৃতিক আধিকারিক জানান। কেন্দ্র সরকারের অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে। ফলে বান্দোয়ান, মানবাজার ২, বরাবাজার প্রভৃতি ব্লক এলাকায় সাবাই ঘাসের গৃহ সামগ্রীর ব্যবসায়িক দৃষ্টিভঙ্গি পাল্টে যাবে। বিশ্ব মাঝারে উপস্থাপিত হবে এবং আন্তর্জাতিক ব্যবসার তকমা পাবে এই কুটির শিল্প। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন  পশ্চিমাঞ্চল উন্নয়ন দফতরের মন্ত্রী সন্ধ্যা রানি টুডু,জেলা সভাধিপতি, জেলাশাসক, পুরুলিয়া, অতিরিক্ত জেলাশাসক( উন্নয়ন), জেলা মাস এডুকেশন এক্সটেনশন আধিকারিক, জেলা পরিষদের  কর্মাধ্যক্ষরা,পশ্চিমবঙ্গ সরকারের বিশিষ্ট বিজ্ঞানী  পারমিতা সাহা সহ বিশিষ্টজন।

LEAVE A REPLY