পরম্পরা মেনে আজও উখরা গ্রামে হয় দক্ষিণা ও আবালে কালীর পুজো

0
52

সংবাদদাতা, অন্ডালঃ দুর্গাপুজোর মতো উখড়া গ্রামে সাড়ম্বরে পালিত হয় কালীপুজোও। গ্রামে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে একাধিক কালী পুজোর প্রচলন। যার মধ্যে অন্যতম হলো ব্যানার্জি পাড়ার দক্ষিণাকালী ও আবালে কালী পুজো দুটি। প্রায় আড়াইশো বছর আগে শুরু হয় দক্ষিণা কালীর পুজো। পুজোটির সূচনা করেন মুখার্জি পরিবারের আদি পুরুষ দীনবন্ধু মুখার্জি ও তার সহোদর ভাই বেণীমাধব মুখার্জি। দুর্গাপুর সংলগ্ন ভরতপুরে তাদের ছিল আদি বাড়ি। বিপর্যয়ে কাঁচা বাড়ি ভেঙে পড়ায় তারা সপরিবারে উঠে আসেন উখড়া গ্রামে। সাথে নিয়ে আসেন পরিবারের কূলদেবতা দক্ষিণা কালীকে। গ্রামের ব্যানার্জি পাড়ায় বসতবাড়ি করে বসবাসের পাশাপাশি সেখানে প্রতিষ্ঠা করেন দক্ষিণাকালীকে। কালী প্রতিমার ডান পা এগিয়ে থাকে। তাই এটি দক্ষিণা কালী নামে পরিচিত। চার পুরুষ ধরে পারিবারিক এই কালীর পুজো হয়ে আসছে বলে জানান পরিবারের সদস্য বাপি মুখার্জি, পিন্টু মুখার্জিরা। সম্প্রতি মন্দিরটি সংস্কার করা হয়েছে। পুজোয় বেড়েছে আড়ম্বর। শোভাযাত্রা সহকারে হয় বিসর্জন। থাকে বাজি প্রদর্শনীর আয়োজন। যা দেখতে ভিড় জমান গ্রামের মানুষজন। অন্যদিকে দক্ষিণা কালীর মন্দিরের পাশেই রয়েছে আবালে কালীর মন্দির। এই পুজোটি আনুমানিক ৩০০ বছর আগে সূচনা করেন প্রয়াত মহাভারত মুখার্জি। দুর্গাপুর ফরিদপুর ব্লকের বালিজুরি গ্রাম থেকে পরিবারটি এসে বসবাস শুরু করেন উখড়া গ্রামের ব্যানার্জি পাড়ায়। সাথে করে নিয়ে এসে এখানে প্রাণ প্রতিষ্ঠা করেন কালীর কবজ। কালী প্রতিমার সাথে থাকে পাতাল প্রবেশ অবলেশ্বর শিবের মূর্তি। যার ফলে এটি অবলেশ্বর কালি নামে এলাকায় পরিচিত। আর কদিন পরেই কালীপুজো। তাই পুজোর আয়োজন নিয়ে চলছে প্রস্তুতি।

LEAVE A REPLY