খনি গর্ভে আগুন,বিপদের আশঙ্কায় খোলা আকাশের নীচে আশ্রয় বাসিন্দাদের

0
139

নিজস্ব সংবাদদাতা, অন্ডালঃ বহুলায় খনি গর্ভে আগুন এখনো নিয়ন্ত্রণে আসেনি, বিপদের আশঙ্কায় এলাকার বাসিন্দাদের অন্যত্র সরে যেতে নির্দেশ দিল কর্তৃপক্ষ। বেশ কিছুদিন ধরে ইসিএলের কেন্দ্রা এরিয়ার বহুলা কোলিয়ারির নর্থ জামবাদ ইউনিটে খনির সুরঙ্গে জ্বলছে আগুন। নিরাপত্তার স্বার্থে গত চার দিন ধরে খনিতে বন্ধ রয়েছে উৎপাদন। সুরঙ্গের আগুন নিভিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে কয়েকদিন ধরেই চেষ্টা চালাচ্ছে সংশ্লিষ্ট কলিয়ারির আধিকারিকারা। গতকাল শনিবার উপর থেকে বোর হোল করে তরল নাইট্রোজেন স্প্রে করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু গতকাল সুরঙ্গের নিচের আগুন ভয়াবহ আকার নেয়। উপরের ফ্যানঘর (যেখান দিয়ে ঠান্ডা হাওয়া ও অক্সিজেন খনি গর্ভে পাঠানো হয় ) দিয়ে কালো ধোঁয়া বের হতে দেখা যায়। এতে আতঙ্ক ছড়ায় এলাকায়। সেই কারণে বোর হোল করে তরল নাইট্রোজেন নিচে পাঠানোর সিদ্ধান্ত স্তগিত রাখা হয় গতকাল। গতকাল বিকেলের পর নিরাপত্তার স্বার্থে খনি চত্বরে কাউকে যেতে দেওয়া হয়নি। গোটা জায়গাটি ঘিরে দেওয়া হয়। সেই সাথে কোলিয়ারি এলাকায় থাকা আবাসনের আবাসিক ও স্থানীয় বাসিন্দাদের অন্যত্র সরে যাওয়ার নির্দেশ দেয় খনি কর্তৃপক্ষ। গতকাল বিকেলে এলাকায় মাইকিং করে তা জানিয়ে দেওয়া হয়। প্রতিটি আবাসনের দরজায় আবাসন দ্রুত খালি করে দেওয়ার বিজ্ঞপ্তি সেটে দেয় কর্তৃপক্ষ। গতকাল সন্ধ্যের পর বিপদের আশঙ্কায় আবাসিক ও বাসিন্দারা নিজেদের ঘর ছেড়ে আশ্রয় নিয়েছে বেশ কিছুটা দূরে খোলা আকাশের নিচে। রবিবার কোলিয়ারি চত্বরে গিয়ে দেখা যায় কোলিয়ারির প্রায় ৪০০ মিটার দূরে থাকা বালি ব্যাংকারের বোর হোল থেকে তরল নাইট্রোজেন ঢালার তোড়জোড় চলছে। ভিতরের তাপমাত্রা স্বাভাবিক করার জন্য ন’ট্যাংকার তরল নাইট্রোজেন ঢালা হবে বলে কলিয়ারি সূত্রে খবর। খোলা আকাশের নিচে আশ্রয় নেওয়া আবাসিক ও বাসিন্দারা জানান, খনি কর্তৃপক্ষ তাদের থাকার ও খাওয়া-দাওয়ার ব্যবস্থা করব বললে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল  কিন্তু এখনো পর্যন্ত কর্তৃপক্ষ কোন সহযোগিতা করেনি বলে অভিযোগ তাদের। খাবার ও পানীয় জলের দ্রুত ব্যবস্থা করার দাবি জানান তারা। গতকাল সন্ধ্যায় ঘটনাস্থলে যান এলাকার তৃণমূল বিধায়ক নরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী, অন্ডাল থানার আধিকারিক শান্তনু অধিকারী সহ অন্যরা। তারা খনি আধিকারিক ও বাসিন্দাদের সাথে কথা বলেন। আবাসিক ও স্থানীয়দের সমস্ত রকম সহযোগিতা করার আশ্বাস দেন বিধায়ক নরেন্দ্রনাথবাবু।

LEAVE A REPLY