নেই অ্যাম্বুলেন্স,হাসপাতালে নেই চিকিৎসক,অসুস্থ খনি শ্রমিকের চিকিৎসা নিয়ে ভোগান্তি

0
216

নিজস্ব সংবাদদাতা, পাণ্ডবেশ্বরঃ ডিউটিতে এসে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন এক খনি শ্রমিক। হাসপাতাল নিয়ে যাওয়ার জন্য সময়ে অ্যাম্বুলেন্স পাওয়া যায়নি বলে অভিযোগ। কেন্দা এরিয়ার ছোড়া খোলামুখ খনির এই ঘটনায় শ্রমিকদের মধ্যে ব্যাপক ক্ষোভের সঞ্চার হয়। শনিবার সকালে অন্যান্য দিনের মতো ডিউটিতে আসেন কেন্দা এরিয়ার ছোড়া খোলামুখ খনির শ্রমিক কামরুদ্দিন মিয়া। অসুস্থ বোধ করায় হাজিরা খাতায় সই করে গাছের তলায় বসে ছিলেন কামরুদ্দিন। হঠাৎই মাথা ঘুরে পড়ে যান তিনি। তৎক্ষণাৎ সহকর্মীরা অসুস্থ কামরুদ্দিনকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার তোড়জোড় শুরু করেন। অভিযোগ, সেই সময় খনি চত্বরে কোন অ্যাম্বুলেন্স ছিল না। কিছুক্ষণ পর অ্যাম্বুলেন্সের পাওয়া গেলেও ছিল না অ্যাম্বুলেন্সের চালক বলে সহকর্মীদের অভিযোগ। কিছুক্ষণ অপেক্ষা করার পর অন্য একটি গাড়ি জোগাড় করে সহকর্মীরা কামরুদ্দিনকে ইসিএল এর ছোড়া হাসপাতালে নিয়ে যান। হাসপাতালে ডাক্তারের পরিবর্তে উপস্থিত ছিলেন একজন নার্সিং স্টাফ। সহকর্মীরা নার্সকে দ্রুত চিকিৎসা শুরু করার অনুরোধ জানান। কিন্তু, নার্স তাদের কথায় গুরুত্ব না দেওয়ায় অসুস্থ শ্রমিকের চিকিৎসা শুরু হতে দেরি হয় বলে সহকর্মীদের অভিযোগ। এরপরই কর্মরত নার্সের বিরুদ্ধে ক্ষোভে ফেটে পড়েন সহকর্মীরা। নার্সের বদলির দাবিতে হাসপাতালে তারা বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। ঘটনার কথা ছড়িয়ে পড়তে ছোড়া খোলা মুখ খনিতেও বিক্ষোভ শুরু করেন অসুস্থ শ্রমিকের সহকর্মীরা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় অন্ডাল থানার বনবহাল ফাঁড়ির পুলিশ। পুলিশের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়। অসুস্থ কামরুদ্দিনের অবস্থা এখন স্থিতিশীল বলে হাসপাতাল সূত্রে খবর।

LEAVE A REPLY