বেসরকারী হাসপাতালের তিন তলায় রান্নাঘরে আগুন,ভয়ে তিন তলা থেকে ঝাঁপ দিল রাধুনি

0
54

নিজস্ব প্রতিনিধি,বাঁকুড়াঃ বেসরকারী হাসপাতালে আগুন। হাসপাতালের তিন তলায় রান্নাঘরে রুমে আগুন লাগে। আগুনের ভয়ে তিন তলার থেকে ঝাঁপ দেয় রাধুনি। ক্যামেরাবন্দি হয়েছে সেই দৃশ্য। যদিও তাঁর বড়সড় কোনও ক্ষতি হয়নি। তিনি ঝাঁপ দিতেই, নীচে তাঁকে ধরে ফেলেন অন্যরা।  আগুনের আতংকে হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে পড়ে রোগী ও রোগীর আত্মীয়রা। ঘটনাস্থলে হাজির দমকলের একটি ইঞ্জিন। ঘটনা বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুর শহরের রবীন্দ্র স্ট্যাচু মোড় সংলগ্ন এলাকায় একটি বেসরকারী হাসপাতালে। আতঙ্কের রোগী নিয়ে হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে পড়েন রোগীর সহ রুগীর আত্মীয়রা। আগুন আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। তিন তলা থেকে নিচে নামার জন্য পুরোহুড়ি পড়ে যায় রুগী এবং আত্মীয় পরিজনদের মধ্যে। পরে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় দমকলের একটি ইঞ্জিন তবে তার আগেই আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। রোগী এবং রোগীর আত্মীয়দের চোখে মুখে আতঙ্কের ছাপ পষ্ট থাকলেও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ আগুন লাগা এবং রাঁধুনির ঝাপ দেওয়ার প্রসঙ্গ কোনভাবেই মানতে চাননি। কর্তৃপক্ষের দাবি আগুন লাগলেও এক্সটিংগুইশার ব্যবহার করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়েছে। কিভাবে দুরঘটনা? কেন ঝাঁপ দিতে হল মহিলা রাধুনি শম্পা মাঝিকে তা খতিয়ে দেখতে হাসপাতালে বিষ্ণুপুর পুলিশ আধিকারিকরা। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গণেশ বিশ্বাস, ওসি ফায়ার বিষ্ণুপুর নেতৃত্বে পুলিশ ও দমকল যান ঘটনাস্থল বেসরকারি হাসপাতালে। খতিয়ে দেখে হাসপাতালের পরিকাঠামগত ত্রুটির কথা স্বীকার করে নিয়েছেন দমকল। হাসপাতালে থাকতে হবে দুটি প্রস্থান কিন্তু এক্ষেত্রে হাসপাতালে একটিমাত্র বাইরে যাওয়ার রাস্তা ছিল একটি রাস্তা তাও তা হাসপাতালে অনুযায়ী অনেক সংকীর্ন। কাঠামোগত দমকলের অনুমতি শংসাপত্র দু মাস পেরিয়ে গেলেও রেনু করা হয়নি।উচ্চ আধিকারিকদের জানানো হয়েছে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে হাসপাতালের বিরুদ্ধে এমনটাই দাবি দমকল আধিকারিকের।

LEAVE A REPLY