গন্ধেশ্বরী নদীর জলস্তর বৃদ্ধির জেরে নড়বড় কাঠের সেতু, দুর্ঘটনা এড়াতে সেতুতে যাতায়াত বন্ধ করল পুরসভা

0
37

নিজস্ব প্রতিনিধি,বাঁকুড়াঃ নিম্নচাপের জেরে গতকাল থেকে বাঁকুড়ায় শুরু হয়েছে বৃষ্টি। আর তার জেরে অন্যান্য নদ নদীর পাশাপাশি জল বেড়েছে গন্ধেশ্বরী নদীতেও। জলের স্রোতে নড়বড়ে হয়ে পড়েছে সতীঘাটের কাছের কাঠের সেতু। দুর্ঘটনা এড়াতে ওই কাঠের সেতু দিয়ে চলাচল বন্ধ করে দিল বাঁকুড়া পুরসভা। বাঁকুড়া শহরের পাশ দিয়ে বয়ে গেছে গন্ধেশ্বরী নদী। এই নদীর এক পাড়ে রয়েছে বাঁকুড়া শহর অন্য পাড়ে রয়েছে বিকনা, হেভির মোড়, কেশিয়াকোল সহ বেশ কয়েকটি গ্রাম। এই গ্রামগুলির মানুষ যাতে সহজে জেলা সদরে যাতায়াত করতে পারেন তার জন্য বাঁকুড়া পুরসভার উদ্যোগে সতীঘাট এলাকায় তৈরী করা হয়েছিল কাঠের সেতু। গতবছর বন্যার তোড়ে ওই সেতু ভেঙে যাওয়ার পর ফের সেই সেতু পুনর্নিমান করে পুরসভা। গতকাল থেকে ফের নদীতে জলস্তর বৃদ্ধি পাওয়ায় ওই সেতু নড়বড়ে হয়ে পড়ে। আজ পুরসভার আধিকারিক ও পদাধিকারীরা কাঠের সেতুটির স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে ওই সেতু দিয়ে যাতায়াত পুরোপুরি বন্ধ করে দেয়। সেতুর দুদিকে বাঁশের ব্যারিকেড দিয়ে দেওয়া হয়। স্থানীয়দের দাবী এর ফলে ফের দুর্ভোগ বাড়লো এলাকার মানুষের। এবার পাঁচ থেকে ছয় কিলোমিটার ঘুরপথে বাঁকুড়া শহরে যাতায়াত করতে হবে কেশিয়াকোল, বিকনা, হেভির মোড় সহ বিভিন্ন এলাকার মানুষকে। আজ বন্ধ হয়ে যাওয়া সেতু পরিদর্শন করতে আসেন বাঁকুড়া পৌরসভার পৌর প্রধান। ঘুরে দেখেন সেতুটির পরিস্থিতি। পুরসভার দাবী দুর্ঘটনা এড়াতেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আগামী দিনে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে সেতুর পরীক্ষা করার পর সাধারণের জন্য খুলে যাওয়া হবে কাঠের সেতুটি প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন বাঁকুড়া পৌরসভার পৌর প্রধান অলকা সেন মজুমদার।

LEAVE A REPLY