বিরল প্রজাতির দুটি গন্ধগোকুল উদ্ধার হল পূর্ব বর্ধমানের ভাতারে

0
155

নিজস্ব প্রতিনিধি,বর্ধমান: ভাতার গ্রামে শনিবার বিকালে একটি তালগাছের নিচে দুটি গন্ধগোকুল বাচ্চাকে ঘোরাঘুরি করতে থাকে স্থানীয়রা। শিয়ালের বাচ্চা ভেবে শোরগোল পড়ে যায় এলাকায়। এরপর খবর দেওয়া হয় ভাতার এলাকার একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার সদস্যদের। স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার সদস্য ধীমান ভট্টাচার্য ভাতার গ্রামে গিয়ে গন্ধগোকুল দুটিকে উদ্ধার করে। সংস্থার পক্ষ থেকে গন্ধগোকুল বাচ্চাদের চিকিৎসা ও সেবা-শুশ্রূষা পাশাপাশি খাবারের ব্যবস্থা করে। কিছুটা সুস্থ হওয়ার পর সংস্থার পক্ষ থেকে রবিবার ওই গন্ধগোকুলের বাচ্চা দুটিকে বর্ধমান বনদপ্তর এর হাতে তুলে দেওয়া হয়।
বনদপ্তর সূত্রে জানা যায়, অনেকটা বিরল প্রজাতির এই প্রাণীটিকে কেউ কেউ গাছ খাটাস বা টলিবিড়াল বলে থাকেন।এটি একটি নিশাচর প্রাণী।এই প্রাণীটির শরীর থেকে বের হয় পোলাও চালের মতও সুগন্ধি।তাই এই প্রাণীটি গন্ধগোকুল নামে পরিচিত। সর্বভুক প্রাণী এটি।গাছের ফল মূল ছোট প্রাণী ইন্দুর ও ফসলের ক্ষতিকর পোকামাকড় খেয়ে কৃষকদের উপকার করে। দ্রুতহারে দিনদিন গাছপালা কমে যাওয়ায় বিলুপ্তির পথে এই গন্ধগোকুলের সংখ্যা।অতিরিক্ত গাছ কাটার ফলে লোকালয়ে আশ্রয় নেয় এই প্রাণীগুলো। স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার সদস্য ধীমান ভট্টাচার্য বলেন,সম্ভবত খাদ্যের অভাবে তাল গাছ থেকে লোকালয়ে চলে আসে খাবারের সন্ধানে। খবর পেয়ে দুটি গন্ধগোকুল উদ্ধার করা হয়। রবিবার সেগুলিকে বনদপ্তরের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

LEAVE A REPLY