বৃদ্ধাশ্রমের আবাসিকদের বাংলা প্রাক নববর্ষের উপহার দিল হিউম্যান রাইটসের সদস্যরা

0
386

নিজস্ব প্রতিনিধি,দুর্গাপুর: চৈত্রের ঝরা পাতার মতোই বাংলা ক্যালেন্ডারের শেষ মাস টাও শেষ হতে চললো। চারিদিকে এসো হে বৈশাখ রবীন্দ্র গীতি ধ্বনিত হচ্ছে। সমাগত বাংলার নববর্ষ। আপামর বাঙালি নতুন বছরকে স্বাগত জানাতে চূড়ান্ত প্রস্তুতিতে ব্যস্ত। আর নববর্ষ মানেই নতুন পোশাক,খাওয়া দাওয়া, দোকান বাজার মন্দিরে পুজোর ব্যস্ততা, হৈ হুল্লোর আনন্দ। বাংলার নববর্ষ আট থেকে আশি সবার কাছেই উৎসবের মেজাজ। তবে এমনও কিছু মানুষ আছেন যারা নিজেদের সংসার থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে আলাদাভাবে থাকেন। যাকে আমরা বৃদ্ধাশ্রম বলি। সেই মানুষগুলিও যাতে নববর্ষের আনন্দ থেকে বঞ্চিত না হয়,সেই লক্ষ্যেই সমাজসেবী সংগঠন হিউমান রাইটস এসোসিয়েটস অফ ইন্ডিয়ার সদস্যরা এদিন দুর্গাপুরের ৫৪ ফুট এলাকার ”অন্তিম এতে’ বৃদ্ধাশ্রমের আবাসিকদের কাছে গিয়ে সন্ধ্যে বেলাটা তাদের সঙ্গেই কাটিয়ে এলো। তাদের সঙ্গে বেশ কিছুটা সময় হাসি গল্প করার পাশাপাশি তাদের সবাইকে নতুন বস্ত্র,হাত ব্যাগ সেই সঙ্গে কিছু শুকনো খাবার তুলে দিলো। সংগঠনের সম্পাদক সৌরভ আইচ জানালেন, বাংলা নববর্ষকে সামনে রেখেই তাদের এই উদ্যোগ। এই প্রবীণ মানুষগুলো যেন নিজেদেরকে নববর্ষের আনন্দ থেকে বঞ্চিত বলে না ভাবে সেই লক্ষ্যেই এদিন তারা এই বয়স্ক মানুষগুলির সঙ্গে কিছুটা সময় কাটাতে এসেছিলেন। সেই সঙ্গে তাদের জন্য সামান্য কিছু উপহারও তাদের হাতে তুলে দেওয়া হয়। স্বাভাবিকভাবেই এমন এক উদ্যোগে সামিল হতে পেরে খুশি হয়েছেন ‘অন্তিম এতে’র আবাসিকরাও। সংগঠনের সম্পাদক সৌরভ আইচ এর সঙ্গেই এখানে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সহ সম্পাদিকা চৈতালি নিয়োগী, মানস মিত্র, যুগ্ম কনভেনর সোমা দাস. দেবারতি নিয়োগী, কোষাধ্যক্ষ চন্দ্রভান সিং সহ এবং সংগঠনের সাধারণ সদস্য সদস্যারা।

LEAVE A REPLY