দুর্গাপুরে এক কাবলিওয়ালার খুনের ঘটনায় মৃতের রাঁধুনিকে খুঁজছে পুলিশ

0
77

নিজস্ব সংবাদদাতা,দুর্গাপুর: এক কাবলিওয়ালার রক্তাক্ত মৃতদেহ উদ্ধারের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে দুর্গাপুর পুরসভার ১৫ নম্বর ওয়ার্ডের মহিষ্কাপুর প্লট এলাকায়। বছর ৬২ এর মৃত কাবলিওয়ালার নাম জানা গেছে আজম খান। এলাকার লোকজনদের কাছে জানা গেছে ওই এলাকায় দীর্ঘদিন ধরেই একটি বাড়িতে ভাড়া থাকতেন ওই কাবলিওয়ালা। সুদের কারবার ছাড়াও কাজু বাদাম,আখরোট ছাড়াও আজম খান কাপড়ের ব্যবসাও করত বলে জানা গেছে। বাঁকুড়ার বড়জোড়ার বাসিন্দা এক এক ব্যক্তি রান্নার কাজের জন্য ওই কাবলিওয়ালার সঙ্গেই থাকত বলে স্থানীয়রা জানায়। ব্যাবসায়িক কাজে আজমকে অনেকেই ফোন করে পায়নি। এদিকে আজমের ঘরে দীর্ঘ সময় ধরে তালা থাকায় আজমের ঘনিষ্ঠ কয়েকজনের সন্দেহ হওয়ায় তারা এলাকার লোকজনদের সাহায্য নিয়ে পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে দুর্গাপুর থানার পুলিশ এসে বাড়ির তালা ভেঙে দেখতে পায় আজম খানের রক্তাক্ত মৃতদেহ পড়ে রয়েছে। মৃতদেহ উদ্ধার করে দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালে পাঠায় পুলিশ। শুক্রবার সন্ধ্যার এই ঘটনার পর থেকেই ওই কাবুলিওয়ালার রাঁধুনির কোন খোঁজ নেই। পুলিশ তার খোঁজ শুরু করেছে। এটাকে খুনের ঘটনা বলেই প্রাথমিকভাবে মনে করছে পুলিশ। তবে কি কারণে এই খুন তা নিয়ে রহস্য তৈরি হয়েছে। আজমের রান্নার লোকের সন্ধান পেলেই এই ঘটনার রহস্য উদঘাটন হতে পারে বলেই মনে করা হচ্ছে। ওই এলাকায় বহু বছর ধরেই বেশ কয়েকজন কাবলিওয়ালা ভাড়া থেকে তাদের ব্যবসা করেন। আজমের এই রহস্য খুনের ঘটনায় তাদের মধ্যে আতংকের সঞ্চার হয়েছে।

LEAVE A REPLY