হাত পা ভাঙার নিদান থেকে হাতা খুন্তি- ভাষনে বেলাগাম নিলাদ্রী থেকে লকেট

0
23

নিজস্ব প্রতিনিধি,বাঁকুড়াঃ অঞ্চল সম্মেলন থেকে ফের বেলাগাম মন্তব্য শোনা গেল বিজেপি নেতৃত্বের মুখে। আজ বাঁকুড়ার বাঁশি গ্রামে বিজেপির জগদল্লা এক নম্বর অঞ্চল সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন হূগলীর সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়, বাঁকুড়ার বিধায়ক নিলাদ্রী শেখর দানা দহ দলের নেতৃত্ব। সেই সভামঞ্চে বক্তব্য রাখতে উঠে সাংসদ, বিধায়ক থেকে শুরু করে বাঁকুড়া এক নম্বর মন্ডলের সভাপতি সকলের মুখেই বেলাগাম মন্তব্য শোনা যায়। ওই মঞ্চ থেকে কেউ মেরে হাত পা ভেঙে দেওয়ার নিদান দিলেন তো কেউ বোমার বদলে নাড়ু মারার নিদান দিলেন। লকেট চট্টোপাধ্যায় নিজেও মহিলাদের খুন্তি বটি নিয়ে প্রতিরোধের ডাক দেন। এদিন সভামঞ্চে বক্তব্য রাখতে উঠে বিজেপির বাঁকুড়া এক নম্বর মন্ডলের সভাপতি বিকাশ ঘোষ বলেন, “গত নির্বাচনে বাঁকুড়া জগদল্লা এক নম্বর অঞ্চলে অনেককে মিথ্যা কেস দিয়েছিল। সামনের পঞ্চায়েত নির্বাচনে আপনারা তৈরী তো?  যদি তৃণমূলের নেতা বা গুন্ডা বাহিনী আপনাদের আক্রমণ করতে আসে দেখে নেবেন,  বুঝে নেবেন। আমাদের কর্মীদের কেউ যদি আক্রমণ করতে আসে তাহলে হাত পা ভেঙে দেবেন। সোজা চোখ উপড়ে নেবেন। মেরে হাসপাতালে ভর্তি করে দেবেন”। পরে ওই সভামঞ্চেই বক্তব্য রাখতে উঠে বাঁকুড়ার বিজেপি বিধায়ক নিলাদ্রী শেখর দানা বলেন, “আমি বিধায়ক রয়েছি। আমরা বোমা, গুলি, মেশিনে বিশ্বাস করিনা। কিন্তু এই পঞ্চায়েত নির্বাচনে কেউ যদি বোমা মারে আপনারা নাড়ু তৈরী করে রাখুন। প্রয়োজনে নাড়ু মারবেন। এদিনের সভামঞ্চ থেকে তৃণমূলের রাজ্য সম্পাদিকা সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ডানাকাটা পরি বলে উল্লেখ করে তাঁর পোষাক নিয়ে ইঙ্গিতপূর্ণ মন্তব্য করেন। পরে বিধায়ক বলেন, সায়ন্তিকা আমার বোন। তাঁর পোষাক নিয়ে কোনো কথা তিনি বলেননি। বোমার বদলে নাড়ু মারার নিদানকেও ইঙ্গিতপূর্ণ বলে মানতে চাননি বিধায়ক। এদিনের সভায় শেষ বক্তব্য রাখতে উঠে লকেট চট্টোপাধ্যায়ও খুন্তি বটি হাতে প্রতিরোধ গড়ে তোলার ডাক দেন। এই বাংলাকে সোনার বাংলাতে পরিনত করতে হলে, বোমাবাজি রক্তের লড়াই বন্ধ করতে হলে আমাদের মা বোনেদের খুন্তি সাঁড়াসি, বটি, ঝাটা নিয়ে রাস্তায় নেমে প্রতিরোধ করতে হবে।

LEAVE A REPLY