স্ত্রীর চোখের সামনেই বাড়ির মধ্যে থাকা বিদ্যুতের খুঁটিতে বিদ্যুৎ পৃষ্ঠ হয়ে মৃত্যু হল স্বামীর

0
241

নিজস্ব প্রতিনিধি,বাঁকুড়াঃ স্ত্রীর চোখের সামনে বিদ্যুতের খুঁটিতে বিদ্যুৎ পৃষ্ঠ হয়ে মৃত্যু হল স্বামীর। ঘটনায় চাঞ্চল্য দেখা যায় এলাকায়। এই দুর্ঘটনার জন্য বিদ্যুৎ দফতরের বিরুদ্ধে গাফিলাতির অভিযোগ তুলে সরব হয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা এবং  গ্রাম পঞ্চায়েতও। বাড়ির মধ্যে থাকা বিদ্যুতের খুঁটিতে বিদ্যুৎ পৃষ্ঠ হয়ে মৃত্যু হয়েছে ওই যুবকের। গতকাল সন্ধ্যায় ঘটনাটি ঘটেছে বাঁকুড়ার পাত্রসায়ের থানার বেলুট হাঁড়ি পাড়ায়। পুলিশ জানিয়েছে, মৃত যুবকের নাম বাপি হাজরা। বিদ্যুৎ দফতরের গাফিলাতিতেই যুবকের মর্মান্তিক মৃত্যু এই দাবি তুলে সরব স্থানীয় বাসিন্দা থেকে শুরু করে গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান। পুলিশ মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বিষ্ণুপুর জেলা হাসপাতালে পাঠিয়েছে। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে পেশায় কৃষক ও স্থানীয় তৃণমূল কর্মী হিসাবে পরিচিত বাপি হাজরার বাড়ি সংলগ্ন এলাকায় একটি বিদ্যুৎবাহী তারের খুঁটি রয়েছে। সম্প্রতি ঝড় বৃষ্টিতে এলাকা বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়লে বিদ্যুৎ দফতরের কর্মীরা তা মেরামতির কাজ করে ফের এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়। গতকাল ওই বিদ্যুতের খুঁটি লাগোয়া একটি বাড়িতে হাঁস মুরগীর খাবার দিতে যান বাপি হাজরা। সেখানেই কোনো কারণে বিদ্যুৎপৃষ্ঠ হন বাপি হাজরা। বিদ্যুৎপৃষ্ঠ হয়ে ঘটনাস্থলেই ছটফট করতে থাকেন বাপি। স্ত্রী লাঠি নিয়ে স্বামীকে ওই খুঁটি থেকে সরিয়ে দেয়। এরপরই গুরুতর আহত অবস্থায় বাপি হাজরাকে উদ্ধার করে স্থানীয় পাত্রসায়ের ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হলে তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। মর্মান্তিক এই ঘটনার জন্য এলাকাবাসী ও গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান বিদ্যুৎ দফতরের কর্মীদের গাফিলাতিকেই দায়ি করেছেন।  

LEAVE A REPLY