৬ মাস আগেও কাজ করে মেলেনি একশো দিনের প্রকল্পে কাজের টাকা, রাজনৈতিক চাপানউতোর শুরু

0
57

নিজস্ব প্রতিনিধি,বাঁকুড়া: ৬ মাস আগে একশো দিনের কাজের প্রকল্পে কেউ কাজ করেছিলেন কুড়ি দিন। কেউ আবার কাজ পেয়েছিলেন ত্রিশ দিন। কিন্তু সেই কাজের মজুরী আজো মেলেনি। বকেয়া মজুরীর দাবিতে এবার কোমর বেঁধে আন্দোলনে নামলেন ওই প্রকল্পে কাজ করা শ্রমিকরা। এতদিন ধরে মজুরী বকেয়া পড়ে থাকায় শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা। একে অপরের ঘাড়ে দোষ চাপিয়ে দায় সেরেছে তৃনমূল ও বিজেপি। বাঁকুড়ার জঙ্গলমহলের অন্তর্গত সারেঙ্গা ব্লকের বিক্রমপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের বড়গাড়রা উত্তর, বড়গাড়রা দক্ষিণ, গোপালডাঙ্গা, কাড়ভাঙা সহ বেশ কয়েকটি গ্রামের মানুষ মাস ছয়েক আগে একশো দিনের কাজের প্রকল্পে কাজ পেয়েছিলেন। সকলে সমান ভাবে কাজ পাননি। কেউ কাজ করেছিলেন কুড়ি দিন কেউ আবার ত্রিশ দিনও কাজ পেয়েছিলেন। কিন্তু আজো সেই কাজের মজুরী মেলেনি। এমনিতেই শুখা মরসুমে এলাকায় তেমন কাজ নেই। ফলে ওই গ্রামগুলির শ্রমিক পরিবারগুলির এখন আর্থিক অবস্থা বেশ খারাপ। এদিকে ৬ মাস আগে কাজ করেও মজুরী বকেয়া থাকায় ক্রমশই ক্ষোভ বাড়ছিল স্থানীয় শ্রমিকদের মধ্যে। শেষমেষ বকেয়া মজুরীর দাবিতে সারেঙ্গা ব্লকের বিডিও অফিস ঘেরাও করে বিক্ষোভে ফেটে পড়লেন ওই গ্রামগুলির বাসিন্দারা। বকেয়া মজুরী না দেওয়া পর্যন্ত নিজেদের আন্দোলন চালিয়ে যেতে মরিয়া আন্দোলনকারীরা। এই ঘটনার জন্য রাজ্যের প্রতি কেন্দ্রের বঞ্চনাকে দুষেছে তৃনমূল। তৃনমূলের দাবি পঞ্চায়েত গুলিকে বেকায়দায় ফেলতে ও মানুষকে যাতে কাজ না দেওয়া যায় সেজন্য কেন্দ্র রাজ্যকে টাকা দিচ্ছে না। এক্ষেত্রে অত্যন্ত অসহায় গ্রাম পঞ্চায়েতগুলি। বিজেপি পালটা এই ঘটনার জন্য রাজ্য সরকারকে দুষেছেন। বিজেপির দাবি প্রতিটি প্রকল্পে রাজ্যে সীমাহীন দুর্নীতি ও বেনিয়ম চলছে। সেই দুর্নীতি ও বেনিয়মের জেরেই এমন ঘটনা ঘটেছে।

LEAVE A REPLY