বিক্ষোভ দেখানোর নামে পুলিশকে ধাক্কাধাক্কি ও শারিরীক হেনস্থার অভিযোগে গ্রেফতার সাত

0
100

নিজস্ব প্রতিনিধি,বাঁকুড়াঃ বেআইনিভাবে গাড়িতে করে গরু পরিবহনের ঘটনায় গ্রেফতার তিন জনকে মুক্তির দাবীতে আন্দোলনের নামে থানার সামনে পুলিশকে ধাক্কাধাক্কি ও মারধরের ঘটনায় সাত জনকে গ্রেফতার করল বড়জোড়া থানার পুলিশ। বেআইনিভাবে গরু পরিবহনের ঘটনায় ধৃতদের নির্দোষ দাবী করে গতকাল রাতে স্থানীয় বড়জোড়া থানা এলাকার বেশ কিছু মানুষ বড়জোড়া থানার সামনে বিক্ষোভ দেখাতে যায়। অভিযোগ সেই সময় পুলিশের সাথে বিক্ষোভকারীদের ধাক্কাধাক্কির ঘটনা ঘটে। পুলিশকর্মীদের শারীরিকভাবে হেনস্থা নিগ্রহ, মহিলা পুলিশ কর্মীদের শ্লীলতাহানি ও থানার বাইরে হালকা ভাংচুরও চালানো হয় বলে অভিযোগ। সেই ঘটনায় গতকাল রাতেই তিন মহিলা সহ মোট সাত জন বিক্ষোভকারীকে গ্রেফতার করে বড়জোড়া থানার পুলিশ। আজ ধৃতদের বাঁকুড়া জেলা আদালতে পেশ করে পুলিশ। স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বিশেষ সূত্রে খবর পেয়ে গত বৃহস্পতিবার মালিয়াড়া বড়জোড়া রাস্তায় তল্লাশী চালিয়ে সাতটি গরু বোঝাই একটি পিক আপ ভ্যানকে আটক করে বড়জোড়া থানার পুলিশ। গরু পরিবহনের বৈধ নথি দেখাতে না পারায় ওই পিক আপ ভ্যানের চালক সহ তিন জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। আদালতের নির্দেশে ধৃত তিনজনকে আপাতত নিজেদের হেফাজতে নিয়ে জেরা করছে পুলিশ। এর মাঝেই গতকাল রাতে আচমকাই ধৃত তিনজনকে নির্দোষ দাবী করে তাদের মুক্তির দাবীতে বেশ কিছু মানুষ বড়জোড়া থানার সামনে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে। বিক্ষোভকারীরা জোর করে থানায় ঢোকার চেষ্টা করলে পুলিশের সাথে কার্যত ধস্তাধস্তি বেধে যায়। অভিযোগ এই সময় বিক্ষোভকারীদের ধাক্কায় সাত পুলিশ কর্মী জখম হন। ভাংচুর করা হয় থানার সামনের অংশে। মহিলা পুলিশ কর্মীদের শ্লীলতাহানী করার অভিযোগও ওঠে বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে। পরে বিশাল পুলিশ বাহিনী ঘটনাস্থলে পৌঁছে বিক্ষোভকারীদের হঠিয়ে দিলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। এরপরই পুলিশ ওই ঘটনায় তিন মহিলা সহ সাত বিক্ষোভকারীকে গ্রেফতার করে। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে ধৃতদের নাম আইনুল মিদ্যা, আফজল মিদ্যা, বাহার মিদ্যা, সোহেল মিদ্যা, আবেদ আলি শেখ, লুদেজা বিবি ও রোজবা বিবি। ধৃতদের আজ বাঁকুড়া জেলা আদালতে পেশ করে পুলিশ। ধৃতদের বিরুদ্ধে সরকারী সম্পত্তি নষ্ট, পুলিশকে মারধর ও শারিরীক হেনস্থা ও মহিলা পুলিশ কর্মীদের শ্লীলতাহানী সহ একাধিক ধারায় মামলা রুজু করেছে পুলিশ। ধৃতরা তাদের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

LEAVE A REPLY