পুজো কার্নিভাল নিয়ে চূড়ান্ত প্রশাসনিক তৎপরতা পুরুলিয়া প্রশাসনের

0
72

সাথী প্রামানিক, পুরুলিয়া, ৬ অক্টোবরঃ পুজো কার্নিভাল হবে পুরুলিয়ায়। আগামী কাল সেই কার্নিভালে যোগ দেবে ১৫টি পুজো কমিটি। প্রস্তুতি শেষ হয়েছে বলে জেলা প্রশাসন সূত্রের খবর। জেলাশাসক রজত নন্দা জানান, কার্নিভালকে আকর্ষণীয় করে তুলতে সব ধরনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। আজকেও কার্নিভাল নিয়ে একটি উচ্চ পর্যায়ের প্রশাসনিক বৈঠক হয়। জেলাপ্রশাসন এবং পুলিশের পদস্থ কর্তারা। বৈঠকেই কার্নিভালের খুঁটিনাটি স্থির করা হয়। কার্নিভালে যোগ দেওয়ার জন্য বহু পুজো কমিটিকে চিঠি দেওয়া হয়েছিল। তার মধ্যে ১৫টি পুজো কমিটি অংশগ্রহণের ইচ্ছা প্রকাশ করে। পুজো কমিটিগুলিকেই নিজেদের খরচেই গাড়িতে করে প্রতিমা আনতে হবে। আনতে হবে সাংস্কৃতিক দলও। যাঁরা আনতে পারছেন না তাঁদের জেলা তথ্য সাংস্কৃতিক দফতর লোক সংস্কৃতির দল দিয়ে সহযোগিতা করবে। ওই সব দলের সদস্যেরা একই রঙের পোশাক পরবেন। শোভাযাত্রায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হবে। বিকেল সাড়ে চারটায় শোভাযাত্রা শুরু হবে পুরুলিয়া শহরের মানভূম ভিক্টোরিয়া ইনস্টিটিউশনের ময়দান থেকে বলে জানান জেলা তথ্য সংস্কৃতি দফতরের আধিকারিক সিদ্ধার্থ চক্রবর্তী। তিনি আরও জানান, মেইন রোড ধরে তা ট্যাক্সি স্ট্যান্ডে পৌঁছাবে। সেখানে দুই পাশে মঞ্চের আসনে থাকা বিশিষ্ট অতিথি ও দর্শকদের সামনে অংশগ্রহণকারীরা তাঁদের দুর্গা প্রতিমা সহ বিভিন্ন ট্যাবলো সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপস্থাপন করবেন। তার পর মেইন রোড ধরে রথতলা পর্যন্ত পৌঁছাবে। রাস্তায় ধারে দাঁড়িয়ে তা দেখবেন দর্শক। কার্নিভালে অংশগ্রহণকারী সেরা পুজোগুলিকে পুরস্কার দেওয়া হবে। শোভাযাত্রায় জেলা প্রশাসনের তরফেও বিভিন্ন সাংস্কৃতিক গোষ্ঠীকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। প্রসঙ্গত, দুর্গাপুজোর আন্তর্জাতিক স্তরের স্বীকৃতিকে সম্মান প্রদর্শনের উদ্দেশ্যে ১ সেপ্টেম্বর বর্ণাঢ্য পদযাত্রা ও সাংস্কতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয় পুরুলিয়ায়। ইউনেস্কোর ইনট্যানজিবল কালচারাল হেরিটেজ অফ হিউম্যানিটির তালিকায় দুর্গাপুজোর অন্তর্ভুক্তির জন্য কলকাতা সহ সারা রাজ্যে ওই অনুষ্ঠান হয়। সেবারেও পুরুলিয়ার মানভূম ভিক্টোরিয়া ইনস্টিটিউশন ময়দান থেকে শোভাযাত্রা শুরু হয়। মেইন রোড ধরে প্রায় আড়াই কিলোমিটার শহরের একাংশ পদযাত্রা করে ডাকবাংলো চত্বরে শেষ হয়।

LEAVE A REPLY