বাঁকুড়ার পঞ্চায়েত এলাকায় ন’বছরের আদিবাসী বালিকাকে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ

0
164

নিজস্ব প্রতিনিধি,বাঁকুড়াঃ ঘুমন্ত অবস্থায় বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে এক ন’বছরের আদিবাসী শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠলো অজ্ঞাত পরিচয় দুস্কৃতির বিরুদ্ধে। বাঁকুড়ার সোনামুখী থানার মানিক বাজার গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার ঘটনা। স্থানীয় সূত্রে খবর, আদিবাসী ওই শিশুটির বাবা  ও মা গত কয়েক বছর আগে মারা যান। পিসির সাথেই গ্রামের বাড়িতে সে থাকতো। অন্যান্য দিনের মতো সোমবার রাতে বাড়িতে যখন সে ঘুমোচ্ছিল তখন তাকে কেউ বা কারা তুলে নিয়ে যায়। বিষয়টি গ্রামের লোক বুঝতে পেরে রাতেই খোঁজাখুঁজি শুরু করলেও সন্ধান মেলেনি। মঙ্গলবার ভোরে রক্তাক্ত অবস্থায় সে নিজের বাড়িতে ফেরে। এই ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। খবর দেওয়া হয় পুলিশে। গ্রামে আসেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (গ্রামীণ) গণেশ বিশ্বাস, বিষ্ণুপুরের এস.ডি.পি.ও কুতুবউদ্দিন খান, সোনামুখী থানার আই.সি সূর্যদীপ্ত ভট্টাচার্যরা। স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি ওই নাবালিকাকে ধর্ষণ করা হয়েছে। স্থানীয়দের দাবি রাতে বিষয়টিকে আমরা ছেলেধরা’র ঘটনা বলে মনে করি। তবে আজ ভোরে ওই নাবালিকা বাড়িতে ফিরলে ধর্ষণের বিষয়টি প্রকাশ পায়। এলাকায় মদের ভাটির সংখ্যা ক্রমাগত বাড়তে থাকায় এই ধরণের ঘটনা ঘটছে বলে দাবি স্থানীয়দের ।মানিক বাজার গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান অরিজিৎ মল্লিক বলেন, পুলিশে অভিযোগ জানানো হয়েছে। গ্রামে পুলিশের শীর্ষ আধিকারিকরা এসেছিলেন। দু’এক দিনের মধ্যেই অভিযুক্তকে ধরা যাবে বলে তাঁর আশা।

LEAVE A REPLY