মল্লারপুরে দুর্ঘটনায় মৃতদের পরিবারকে চাকরির দাবিতে ৬০ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ

0
30

পারমিতা মণ্ডল, রামপুরহাট, ১০ আগস্ট: বীরভূমে মল্লারপুরে পথ দুর্ঘটনায় মৃতদের পরিবারকে আর্থিক ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথা ইতিমধ্যে প্রধানমন্ত্রী থেকে মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেছেন। কিন্তু ওই ক্ষতিপূরণ যথেষ্ট নয়। মৃতদের পরিবারকে চাকরি দেওয়ার দাবিতে সরব হয়েছেন ভারত জাকাত মাঝি পরগনা এবং এলাকাবাসী। এই দাবিতে বুধবার ৬০ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করল ভারত জাকাত মাঝি পরগনা। চাকরির দাবি জানানোর পাশাপাশি আর্থিক ক্ষতিপূরণ বৃদ্ধি সহ পুরোনো বাস রাস্তা থেকে তুলে নেওয়ারও দাবি জানিয়েছে এই আদিবাসী সংগঠন। আদিবাসীদের এই দাবির জেরে এদিন দুপুর থেকে অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছে ৬০ নম্বর জাতীয় সড়ক। অন্য পথে ঘুড়িয়ে দেওয়া হয় যাত্রীবাহী বাস। প্রশাসনের আশ্বাসে ঘণ্টাখানেক পর অবরোধ উঠে যায়।
জানা গিয়েছে, এদিন দুপুর ১২ টা নাগাদ দুর্ঘটনাস্থল মল্লারপুরের মেটেল ডাঙ্গা গ্রামের কাছেই ৬০ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করে আদিবাসী সংগঠন ভারত জাকাত মাঝি পরগনা। মৃতদের পরিবারকে চাকরি দেওয়ার পাশাপাশি প্রত্যেক পরিবারকে ৫ লাখ টাকা করে আর্থিক ক্ষতিপূরণ এবং তাঁদের ভরণ-পোষণের দায়িত্ব সরকারকে নিতে হবে বলে দাবি জানিয়েছে এই সংগঠন। এছাড়া পুরোনো মডেলের বাসগুলি অবিলম্বে রাস্তা থেকে তুলে নিতে হবে বলে দাবি জানিয়েছে ভারত জাকাত মাঝি পরগনা। প্রশাসনের তরফে এ ব্যাপারে আশ্বাস পাওয়ার পর অবরোধ প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়। পশ্চিম বর্ধমানের রানীগঞ্জ থেকে ও মুর্শিদাবাদের মোড়গ্রামের মধ্যে অন্যতম প্রধান সংযোগকারী ৬০ নম্বর জাতীয় সড়কের মাঝে অবরোধের ঘটনায় যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে বিশাল পুলিশবাহিনী। প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার বিকেলে বীরভূমের মল্লারপুরে মর্মান্তিক পথ দুর্ঘটনার দুঃখ প্রকাশ করে এদিন টুইট করে ক্ষতিপূরণের ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি জানিয়েছেন, সমব্যথী প্রকল্পের আওতায় মৃতদের পরিবার পিছু ২ লাখ টাকা করে অর্থ সাহায্য দেওয়া হবে। এছাড়া প্রত্যেকের শেষকৃত্যের জন্য ২ হাজার টাকা করে দেবে সরকার। এছাড়াও অতিরিক্ত বিশেষ অনুদানও মিলবে সরকারের তরফে।
এর আগে মঙ্গলবার রাতে দুর্ঘটনার পরই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও টুইট করে ঘটনায় দুঃখপ্রকাশ করেছেন এবং আহত ও নিহতদের আর্থিক ক্ষতিপূরণের কথা ঘোষণা করেছেন। নিহতদের প্রত্যেকের নিকটাত্মীয়কে প্রধানমন্ত্রীর জাতীয় ত্রাণ তহবিল থেকে দেওয়া হবে ২ লাখ টাকা এবং আহতদের প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা দেওয়া হবে বলে ঘোষণা করেছেন তিনি। উল্লেখ্য, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মল্লারপুর থানার মেটেলডাঙা গ্রামের কাছে ৬০ নম্বর জাতীয় সড়কের উপর বাসের সঙ্গে অটোর মুখোমুখি সংঘর্ষে মৃত্যু হয় ৯ জনের। যার মধ্যে ৮ জনই অটোর মহিলা যাত্রী। ঘটনার পরেই বাসের চালক ও খালাসি পলাতক।

LEAVE A REPLY