ফিটনেস ছাড়াই চলছে সরকারী বাস,আরটিএ-র ভূমিকায় এবার কংগ্রেস

0
265

নিজস্ব প্রতিনিধি,বর্ধমানঃ সরকারি বাস গুলি বৈধ কাগজপত্র ছাড়াই রাস্তায় যাতায়াত করছে, এই অভিযোগ তুলে বর্ধমান – কোলকাতা ও বর্ধমান – করুণাময়ী রুটের বাস আটকে দিল যুব কংগ্রেস। বুধবার বর্ধমানের নবাবহাট বাস স্ট্যাণ্ডে এই অবরোধ কর্মসূচি করে তারা। যুব কংগ্রেস কর্মীদের অভিযোগ,ফিটনেস ফেল, ইনস্যুরেন্সের ফেল,পুরোনো টায়ার রিসোল করে অবৈধভাবে চলাচল করছে সরকারি বাসগুলি। মানুষের জীবন নিয়ে ছেলেখেলা করছে রাজ্য সরকার। ফিটনেস সহ একাধিক ত্রুটি থাকা সত্ত্বেও  সরকারি বাসগুলি ছুটছে। ফলে মাঝে মধ্যেই দুর্ঘটনার মধ্যে পড়তে হচ্ছে বাসগুলিকে। এই অভিযোগ তুলে বুধবার দুপুরে নবাবহাট বাসস্ট্যাণ্ডে WB 39A 9305 এবং  WB39A 9638 নম্বরের দুটি বাস আটকে দেয় যুব কংগ্রেস কর্মীরা। দীর্ঘক্ষণ বাস দুটি আটকে থাকায় সমস্যার মধ্যে পড়তে হয় যাত্রীদের। যদিও যুব কংগ্রেসের এই আন্দোলনে তাদের সমর্থন জানিয়েছেন বাসযাত্রীরা। যেখানে সাধারণ গাড়ির সামান্য ত্রুটির কারণে বড় অংকের টাকা সাধারণ মানুষকে জড়িমানা দিতে হয় সেখানে কিভাবে রিসোলিং টায়ার নিয়ে সরকারি বাসগুলি যাতায়াত করছে প্রশ্ন তোলেন আন্দোলনকারীরা। দীর্ঘক্ষণ আন্দোলন চলার পর দক্ষিণবঙ্গ রাস্ট্রীয় পরিবহন সংস্থার দুই আধিকারিক ট্রাফিক সুপারিনটেনডেন্ট অজিত কুমার জানা ও ট্রাফিক ইনসপেক্টর কৃষ্ণ ঘোষ আন্দোলনকারীদের সাথে আলোচনা করে গোটা বিষয়টি দেখার জন্য দশ দিন সময় চান। আধিকারিকদের সাথে আলোচনার পর আন্দোলন তুলে নেয় যুব কংগ্রেস কর্মীরা।  রিসোলিং টায়ার নিয়ে সরকারি বাস চলাচল করে এই কথা স্বীকার করলেও বাকি অভিযোগ নিয়ে সাংবাদিকদের কাছে কোন কথা বলতে চাননি আধিকারিকরা। যদিও এস বি এস টি সির চেয়ারম্যান সুভাস মণ্ডল টেলিফোনে জানিয়েছেন, আন্দোলনকারীরের অভিযোগ সত্য নয়। সমস্ত সরকারি বাসগুলির ক্ষেত্রেই ইনস্যুরেন্সের টাকা সরকারের পক্ষ থেকে জমা করা হয়। অ্যাপে আপডেট না থাকার কারনে দেখা যাচ্ছে না। অ্যাপে আপলোড করার কাজ চলছে,সম্পূর্ণ হয়ে গেলেই দেখা যাবে ।

LEAVE A REPLY