স্কুলের টিউবয়েল থেকে বিকট শব্দ,ঝাঁঝালো গ্যাস বেড়ানো নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল

0
38

সংবাদদাতা, অন্ডালঃ চাপাকল থেকে শব্দ ও ঝাঁঝালো গ্যাস বেরোনো নিয়ে এলাকায় ছড়ালো চাঞ্চল্য। শুক্রবার সকালে সিদুলীর একটি স্কুলের ঘটনা।ঘটনা জেরে এদিন পড়ুয়াদের ছুটি দিয়ে দেয় স্কুল কর্তৃপক্ষ। খান্দরা পঞ্চায়েতের সিদুলী দীঘিরবাধ এলাকায় রয়েছে একটি আদিবাসী অবৈতনিক প্রাথমিক বিদ্যালয়।সরকারি এই বিদ্যালয়টিতে বেশ কিছুদিন ধরে চলছে সংস্কারের কাজ।শুক্রবার সকালে কাজ করার সময় কর্মরত এক মিস্ত্রি লক্ষ্য করেন বিদ্যালয়ের একটি চাপাকল থেকে বিকট শব্দের পাশাপাশি বের হচ্ছে ঝাঁঝালো গ্যাস। কিছুক্ষণের মধ্যে গোটা এলাকা-তে সেই গ্যাস ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে স্কুল চত্বরে ভিড় জমান স্থানীয়রা। আতঙ্ক ছড়ায় অভিভাবকদের মধ্যেও। মোহাম্মদ রিজওয়ান নামে এক অভিভাবক বলেন ঝাঁঝালো গ্যাসের কারণে শ্বাস নেওয়া যাচ্ছে না। এই অবস্থায় পড়ুয়াদের স্কুলে পাঠানোটাও বিপদজনক বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেন তিনি। খবর পেয়ে স্কুলে পৌঁছান অন্ডাল থানার বনবহাল থানার পুলিশ ও সিদুলী কোলিয়ারির সুরক্ষা বিভাগের কয়েকজন আধিকারিক। নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক আধিকারিক বলেন,প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে কল থেকে বেরোনো গ্যাস সম্ভবত কার্বন-ডাই-অক্সাইড। খনির নিচে থেকে কয়লা কাটার পর অনেক সময় মাটি ফুঁড়ে এই ধরনের গ্যাস বের হয়। তবে স্কুলে চাপাকল থেকে কি কারনে গ্যাস বের হচ্ছে তা কিছু পরীক্ষা নিরীক্ষার পরেই জানা যাবে বলে জানান তিনি। স্কুলের প্রধান শিক্ষক অমরনাথ ঘাটা বলেন স্কুলে দুটি চাপাকল ও একটি কুঁয়ো রয়েছে। চাপাকল দুটি দীর্ঘদিন ধরে রয়েছে বিকল। বিষয়টি জানানো হয়েছে পঞ্চায়েত, খনি কর্তৃপক্ষ ও সংশ্লিষ্ট সবাইকে। বিকল্প কল দুটি সিল করে দেওয়ার আবেদন জানানো হয়েছে। তবে সেই কাজ এখনো হয়নি। আজকে গ্যাস বেরোনো সম্পর্কে জিজ্ঞেস করাই অমরনাথবাবু বলেন, বিষয়টি জানার পরেই বিডিও ও স্কুল পরিদর্শককে অবগত করা হয়েছে।পড়ুয়াদের নিরাপত্তার কারণেই স্কুল ছুটি দিয়ে দেওয়া হয় বলে জানান অমরনাথবাবু।

LEAVE A REPLY