আবাস যোজনা নিয়ে আদালতে জনস্বার্থ মামলা করবে বিজেপিঃ শুভেন্দু

0
35

নিজস্ব প্রতিনিধি,বাঁকুড়াঃ আমরা এবার কথা দিতে পারি পঞ্চায়েত নির্বাচনে  নমিনেশান আমরা করাব। বাঁকুড়া জেলায় ৬ জন বিধায়ক,  মন্ত্রী ও সাংসদ আছেন। তাঁদের সাথে নিরাপত্তারক্ষী থাকে। আমাদের বিধায়ক সাংসদরা প্রত্যেকটি বিডিও অফিসের ভেতরে থাকবেন। কথা দিতে পারি তাঁরা আপনাদের মনোনয়ন করাবেন এবং সঠিক ভাবে আপনাদের বাড়িতে পৌঁছে দেবেন। বুথগুলিকে দূর্গ তৈরী করবেন। আর যদি চটি পরা পুলিশ বুথ লুঠ করতে যায় তাহলে ধরবেন,বক্স ফেলবেন পুকুরে। এবারের পঞ্চায়েত গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার ডু অর ডাই লড়াই। আজ বাঁকুড়ার বড়জোড়া হাইস্কুল ময়দানে বিজেপির একটি জনসভায় এই ভাষাতেই দলীয় কর্মীদের পঞ্চায়েত নির্বাচনে তৈরী থাকার নির্দেশ দিলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। আবাস যোজনা নিয়ে এদিনের সভা থেকে ফের তৃণমূলকে একহাত নিয়ে  শুভেন্দু অধিকারী বলেন, বিজেপির রাজ্য কমিটি আগামী সপ্তাহে আবাস যোজনা নিয়ে আদালতে জনস্বার্থ মামলা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তিনি বলেন, আবাস যোজনার তালিকায় ব্যাপক দুর্নীতি হয়েছে। যোগ্য মানুষদের নাম আবাস যোজনায় ওঠেনি। অবস্থাপন্নদের নাম উঠেছে তালিকায়। আমরা যোগ্যদের নাম তালিকায় তুলে দিতে পারব না। তাই রাজ্য কমিটি সিদ্ধান্ত নিয়েছে জনস্বার্থ মামলা করে যোগ্যদের বাড়ি পাইয়ে দেওয়ার। সভা শেষে শতাব্দীর বিক্ষোভের মুখে পড়া নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে শুভেন্দু অধিকারীর প্রতিক্রিয়া- চোরেদের পেলে লোকে এমনটাই করবে। পুরো দলটাই চোর। এতো অল্প হয়েছে। আরো বেশি কিছু হওয়া উচিৎ ছিল। গ্রাম জেগেছে। দক্ষিণ কলকাতার প্রাসাদে থাকা লোকেদের বিরুদ্ধে গ্রামের লড়াই। গ্রাম চালাবে রাজ্য। গ্রাম জেগেছে। যার বাড়িতে আসবে কোটি কোটি টাকা পাবে। এক একটা প্রধানের বাড়িতে তল্লাশি হলে দু তিন কোটি টাকা পাবে। চালের বস্তায় ব্যবসার টাকা রেখেছিল? আমিরুদ্দিন ও জাকিরের বাড়িতে তল্লাশিতে টাকা উদ্ধার প্রসঙ্গে এই প্রতিক্রিয়া দিলেন শুভেন্দু অধিকারী। আবাস নিয়ে দশটি জেলায় পাঁচটি কেন্দ্রীয় দল আসছে। চোরদের টাকা ফেরৎ করতেই হবে। চোরদের টাকা দেবে না ভারত সরকার। রাজ্যে আবাস যোজনায় কেন্দ্রীয় দল আসা প্রসঙ্গে বললেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা।

LEAVE A REPLY