বিজয়া সম্মেলনীর অনুষ্ঠানেও মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে বিষোদগার সুকান্ত মজুমদারের

0
55

নিজস্ব প্রতিনিধি,বর্ধমানঃ বুধবার বর্ধমানের সংস্কৃতি লোকমঞ্চে জেলা বিজেপির বিজয়া সম্মেলনী ছিল। সেই সভায় উপস্থিত ছিলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। নিজের বক্তব্যে তিনি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে মিথ্যেবাদী বলেন। তিনি বলেন, মমতা বন্দোপাধ্যায় দাবি করেছেন  টাটাকে তারা তাড়ান নি।সি পি এম তাড়িয়েছে। উনি মাঝে মাঝে এমন মিথ্যা বলেন। এটা নতুন কিছু নয়। তিনি আরও বলেন, যে সমস্ত নেতাদের স্নায়ুতন্ত্র এত দুর্বল যে কে দুর্নীতিগ্রস্ত হয়ে পড়ছেন তা বুঝতে পারছেন না। সে দলের না থাকাই ভাল।যাত্রাপালায় একজন বিবেক থাকত। নীতিকথা শুনিয়ে যেত এটাও সে রকম। তৃণমূল কংগ্রেসের সাংসদ সৌগত রায়কে কটাক্ষ করে তিনি বলেন, তোয়ালে মুড়ে টাকা না নিলেই হল। তিনি এই সভায় বক্তব্য পেশ করতে গিয়ে আরও বলেন, রাজ্য সরকার চলছে মদের টাকায়। অভিষেক ব্যানার্জীর চোখের চিকিৎসা নিয়েও তোপ দাগেন। তিনি বলেন, দেশের রাষ্ট্রপতি দ্রোপদী মুর্মু  চোখের চিকিৎসা করাতে সরকারি হাসপাতালে যাচ্ছেন। আর বাংলার যুবরাজ অভিষেক বিশাল টাকা খরচ আমেরিকায় চোখের চিকিৎসা করানোর নামে বিদেশে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। অন্যদিকে দলীয় সাংসদ সৌমিত্র খানের প্রসঙ্গে তিনি বলেন,পঞ্চায়েতে তাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল।আমাদের দলে যাকে দায়িত্ব দেওয়া হয় তার সাথে আলোচলা হয় না। আমাকে সভাপতি করার আগেও হয়নি। অন্যদিকে সুকান্ত মজুমদার বলেন, অনন্ত মহারাজ রাজনৈতিক নেতা নন। তার কাছে কেউ যেতে পারেন।মমতাও যান। কলকাতার মোমিন পুরে অশান্তি নিয়ে তিনি বলেন, রাজ্যের আদালত বা হাইকোর্ট  নির্দেশ দিয়েছে। এন আই এ তদন্ত করছে। যারা অ্যারেস্ট হবার যোগ্য অ্যারেস্ট হবে। পুলিশ ছাড়া তৃণমূল কংগ্রেসের কোনো অস্তিত্ব নেই।পুলিশ না থাকলে উবে যাবে তৃণমূল। অন্যদিকে কংগ্রেস সভাপতি নির্বাচন নিয়ে বিজেপি রাজ্য সভাপতি বলেন, মল্লিকার্জুন কংগ্রেস সভাপতি হলেন। এমন একটা জাহাজে উনি ক্যাপ্টেন হলেন যেটা থেকে সবাই পালাচ্ছে। তবে মোদীজি আবার প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন।

LEAVE A REPLY