গ্রামের মানুষের দাবি না মেনে অন্য গ্রামে সুস্বাস্থ্য কেন্দ্র,পঞ্চায়েতের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ বঞ্চিত গ্রামবাসীদের

0
64

নিজস্ব প্রতিনিধি,বাঁকুড়াঃ গ্রামের মানুষকে কথা দিয়ে সেই কথা রাখেনি পঞ্চায়েত। গ্রামের মানুষকে প্রতিশ্রুতি দিয়ে অন্যগ্রামে সু স্বাস্থ্য কেন্দ্র তৈরি ঘিরে পঞ্চায়েতের ভুমিকা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। উঠে আসছে প্রভাব খাটানোর তত্ত্ব। গ্রামের মানুষের কাছ থেকে নথী চেয়ে সেই গ্রামে সুস্বাস্থ্য কেন্দ্র তৈরি হবে এমন আশ্বাস দেওয়া হয়েছিল পঞ্চায়েতের তরফে। পরে এলাকার মানুষ জানতে পারেন ওই সু স্বাস্থ্য কেন্দ্র তৈরি হচ্ছে অন্য গ্রামে। সোমবার সেই ক্ষোভে পঞ্চায়েত অফিসের সামনে এসে প্রবল বিক্ষোভে ফেটে পড়লেন গ্রামবাসীরা। পঞ্চায়েতের ইঞ্জিনিয়ারকে ঘিরে রেখে বিক্ষোভ দেখালেন গ্রামবাসীরা। ঘটনা বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুর ব্লকের উলিয়াড়া গ্রাম পঞ্চায়েতের।ওই পঞ্চায়েতের নারায়ানপুর সহ আশেপাশের সাত আটটি গ্রামের মানুষের সুবিধার কথা ভেবে নারায়নপুরে সুস্বাস্থ্য কেন্দ্র গড়ে তোলার আবেদন জানানো হয় গ্রামবাসীদের তরফে। সুত্রের খবর পঞ্চায়তে থেকে সুস্বাস্থ্য কেন্দ্র গড়ে তোলার জন্য ওই গ্রামের মানুষের কাছে কাগজ পত্র চাওয়া হয় পঞ্চায়েতের তরফ থেকে। সংশিষ্ট পঞ্চায়েতের ইঞ্জিনিয়ারের নিকট কাগজপত্র জমাও দেন নারায়নপুরের গ্রামের মানুষজন। এলাকাবাসীদের দাবী সরকারীভাবে ওই গ্রামেই সুস্বাস্থ্য তৈরির অনুমোদনও দেওয়া হয়। অভিযোগ নারায়নপুর গ্রামে সুস্বাস্থ্য কেন্দ্র না করে ওই গ্রামের থেকে বেশ কিছুটা দুরে হিংজুড়ি গ্রামে সুস্বাস্থ্য কেন্দ্র চালু করার কাজ চলছে। এতেই ক্ষোভ উগরে দেয় গ্রামবাসীরা। সোমবার পঞ্চায়েতের অফিসের সামনে এসে চরম বিক্ষোভে নারায়ানপুর সহ আশেপাশের সাত আটটি গ্রামের মানুষের।প্রস্তাবিত নারায়নপুর গ্রামে ওই সুস্বাস্থ্য কেন্দ্র চালু না হলে বৃহত্তর আন্দোলনের পথে যাবেন গ্রামবাসীরা এমন হুশিয়ারি দেওয়া হয়েছে আন্দোলনকারীদের তরফে। সামনে আসছে প্রভাব খাটিয়ে এই কাজ করেছে পঞ্চায়েত। কেন এই ঘটনা তার সদুত্তর মেলেনি পঞ্চায়েতের কাছ থেকে। তবে গ্রামবাসীদের দাবি ব্লক স্তরে জানানো হয়েছে বলে জানান পঞ্চায়েত সচিব।

LEAVE A REPLY