কোর্টের নির্দেশে কাজ গেল দুর্গাপুর-ফরিদপুর ব্লকের স্কুল শিক্ষকের

0
176

সার্থককুমার দে, লাউদোহাঃ কোর্টের নির্দেশে কাজ হারালেন দুর্গাপুর ফরিদপুর ব্লকের নবঘনপুর অবৈতনিক প্রাথমিক বিদ্যালয় টিচার ইনচার্জ সুশান্ত কুমার চ্যাটার্জী। ঘটনাটি ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে শিক্ষা মহলে। রাজ্যে শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরেই সরগরম রাজ্য রাজনীতি। হাইকোর্টের পর্যবেক্ষণে শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতির মামলায় তদন্ত করছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআই।‌ ইতিমধ্যে কোর্টের নির্দেশে কাজ থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে একাধিক শিক্ষককে। যারা কাজ হারিয়েছে তাদের মধ্যে তালিকায় রয়েছেন দুর্গাপুর ফরিদপুর ব্লকের নবঘনপুর অবৈতনিক প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক সুশান্ত কুমার চ্যাটার্জীর নামও।তিনি স্কুলে টিচার ইনচার্জ পদে দায়িত্ব ছিল। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে,লাউদোহা গ্রামের মাস্টার পাড়া-র বাসিন্দা সুশান্তবাবু। শিক্ষকতার চাকরিতে যোগ দেওয়ার আগে সুশান্তবাবু চুক্তিভিত্তিতে কাজ করতেন দুর্গাপুর ফরিদপুর ব্লক অফিসে। টেট পরীক্ষা দিয়ে ২০১৮ সালের জানুয়ারি মাসে তিনি শিক্ষক হিসাবে কাজে যোগ দেন অন্ডাল ব্লকের একটি বিদ্যালয়ে। ২০১৯ সালে আবেদনের ভিত্তিতে তিনি যোগ দেন নবঘনপুর অবৈতনিক প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। গত ১৫ তারিখ ডিস্ট্রিক্ট প্রাইমারি স্কুল কাউন্সিল দপ্তরে কাজ থেকে বরখাস্ত করার জন্য নামের একটি তালিকা পাঠায় হাইকোর্ট। সেই তালিকায় নাম রয়েছে শিক্ষক সুশান্তবাবুর। বিষয়টি নিয়ে সংশ্লিষ্ট দপ্তরের দুর্গাপুর নর্থের এসআই সুধাংশুশেখর চক্রবর্তী জানান, এটি কোর্টের নির্দেশ। নির্দেশ অনুযায়ী পদক্ষেপ করা হয়েছে। শুক্রবার লাউদোহা গ্রামে সুশান্তবাবুর বাড়ি গেলে দেখা যায় বাড়ির দরজা ভেতর থেকে বন্ধ। বহু ডাকাডাকি করেও কারো সাড়া পাওয়া যায়নি। তার মোবাইলের সুইচড অফ। সুশান্তবাবুর চাকরি যাওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়তে এদিন স্কুলের সামনে জটলা করেছিলেন স্থানীয়রা। তবে তারাও এই বিষয়টি নিয়ে কেউ কোনো প্রতিক্রিয়া দিতে চাইনি।

LEAVE A REPLY