গলসিতে তৃণমূলের কর্মীসভায় প্রকাশ্যে এল গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব

0
85

নিজস্ব প্রতিনিধি,বর্ধমানঃ শাসকদলের সভায় গোষ্ঠী কোন্দল প্রকাশ্যে এল  বর্ধমানের গলসিতে। খোদ ব্লক সভাপতির বিরুদ্ধে  বিস্ফোরক বক্তৃতা দিলেন দলেরই নেতা নেত্রীদের একাংশ। রবিবার সন্ধায় গলসির পুরসা গ্রামে তৃণমূল কংগ্রেসের  কর্মীসভা আয়োজন করেছিল ব্লক এসসি ওবিসি সেল ও তৃণমূল ছাত্র পরিষদ। সেই সভা মঞ্চে দাঁড়িয়ে গলসি ১ নম্বর ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি জনার্দন চ্যাটার্জীর বিরুদ্ধে  একের পর এক বিষোদগার করেন দলের একাংশের  নেতা নেত্রীরা। আর এতেই চরম বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি হয়। তবে ছাত্র নেতা তাপস সোমকে থামিয়ে কর্মীদের শান্ত হওয়ার বার্তা দেন প্রাক্তন ব্লক সভাপতি জাকির হোসেন। তৃণমূলের দলীয় কর্মীসভায় কার্যত  প্রকাশ্যে এল তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দল। রবিবার গলসি ১ নম্বর ব্লকের ঘাগরা গ্রামের তৃণমূল কর্মী বকুল মোল্লাকে একা পেয়ে মেরে তার হাত পা ভেঙে দেয় দলের অপর গোষ্ঠীর লোকজন। আর এই ঘটনার জেরে রবিবার সন্ধ্যায় কর্মী সভার আয়োজন করা হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন প্রাক্তন ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি জাকির হোসেন,তৃণমূল ছাত্র পরিষদের ব্লক সভাপতি তাপস সোম। তাপস সোম রীতিমত হুমকি দিয়ে ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি জনার্দন চ্যার্টার্জীকে বলেন, ডেট করে একদিন দেখা যাক কার কত শক্তি। অন্যদিকে প্রাক্তন ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি জাকির হোসেন বলেন, বকুল মোল্লা দলের পুরনো কর্মী। তাকে মারধর করা হয়েছে। বর্তমান ব্লক সভাপতি নব্য তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী সমর্থকদের নিয়ে চলছেন। পুরনো কর্মীদের বাদ দিয়ে দলের কর্মসূচি নেওয়া হচ্ছে। এই বিষয়ে ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি জনার্দন চ্যাটার্জীর সঙ্গে যোগযোগ করা হলে তিনি বলেন, কে কি বললো সেই নিয়ে আমি কোন মন্তব্য করবো না। এলাকায় গেলেই জানতে পারবেন আমি কি ভাবে চলি।

LEAVE A REPLY