গোগলা গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় গাছ কেটে পাচারের অভিযোগ

0
158

নিজস্ব সংবাদদাতা, দুর্গাপুরঃ  পাচারের জন্য অবাধে কাটা হচ্ছে গাছ। ঘটনাটি দুর্গাপুর ফরিদপুর ব্লকের গোগলা গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার। ঘটনায় জড়িত এক ব্যক্তিকে আটক করেছে পুলিশ। চলতি মাসের ১ থেকে ৭  তারিখ সর্বত্র সাড়ম্বরে পালিত হয়েছে বৃক্ষরোপণ সপ্তাহ। সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও সংগঠনের উদ্যোগে বিভিন্ন জায়গায় লাগানো হয়েছে গাছের চারা। প্রাকৃতিক ভারসাম্য বজায় রাখতেই প্রতিবছর বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালন করা হয় এই সময়ে। অবশ্য এর উল্টো চিত্র দুর্গাপুর ফরিদপুর ব্লকের গোগলা এলাকায়। গাছ লাগানোর পরিবর্তে সম্প্রতিককালে এখানে বেড়েছে গাছ কাটার প্রবণতা। প্রায় প্রতিদিনই এলাকার কোন না কোন জায়গায় পাচারের উদ্দেশ্যে কেটে ফেলা হচ্ছে গাছ বলে অভিযোগ স্থানীয়দের। স্থানীয় ৭  নম্বর লস্করবাধ এলাকায় গাছ কাটার একটি ভিডিওচিত্র রবিবার সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। যা ঘিরে এলাকায় তৈরি হয় চাঞ্চল্য। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে লাউদোহা থানার পুলিশ। সেখানে যে সব গাছ কাটা হয়েছে তার বেশির ভাগই সোনাঝুরি প্রজাতির গাছ। গাছ কাটার সাথে যুক্ত থাকার অভিযোগে পুলিশ মোহন বাদ্যকর নামে এক ব্যক্তিকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। তার কাছ থেকে উদ্ধার হয় গাছ কাটার কাজে ব্যবহারের বিভিন্ন সরঞ্জাম। কে বা কারা এই গাছ পাচারের সাথে যুক্ত প্রশ্ন করায় পঞ্চায়েত প্রধান অনিতা দাস জানান বিষয়টি তার জানা নেই। যদিও স্থানীয়দের অভিযোগ শাসক দলের একাংশের মদতেই এলাকায় গাছ কাটার কারবার চলছে। তৃণমূলের ব্লক সভাপতি সুজিত মুখোপাধ্যায় পুলিশ বিষয়টি দেখছে। যারা ঘটনায় যুক্ত প্রশাসন তাদের বিরুদ্ধে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেবে। বনদপ্তর এর দুর্গাপুর মহকুমা বিভাগীয় আধিকারিক নীলরতন পান্ডা জানান খনি অঞ্চল থেকে গাছ কাটার অভিযোগ প্রায়ই আসে। তবে ঐ এলাকায় বনভূমি নেই। তবু অভিযোগ খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দেন তিনি।     

LEAVE A REPLY