উৎকর্ষ বাংলা প্রকল্প নিয়ে প্রশাসনিক কর্তাদের সঙ্গে শিল্পপতিদের সভা জামুড়িয়ায়

0
71

নিজস্ব সংবাদদাতা জামুড়িয়া:- জামুড়িয়া শিল্প তালুকের উৎকর্ষ বাংলা প্রকল্প যাতে দ্রুততার সঙ্গে কাজ শুরু হয় তার জন্য জামুড়িয়া চেম্বার অফ কমার্স ও সমস্ত ছোট ও বড় কারখানার আধিকারিকদের সঙ্গে আলোচনা সভা করলেন পশ্চিম বর্ধমান জেলার জেলাশাসক এস অরুণ প্রসাদ সহ জেলার শীর্ষ স্থানীয় প্রশাসনিক আধিকারিকরা। জামুড়িয়া সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিক এর দপ্তরে এই আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদের অধ্যক্ষ তাপস চক্রবর্তী, এডিএম(ডেভেলপমেন্ট) সঞ্জয় পাল, ডি আর ডি সি পারমিতা মন্ডল, পশ্চিম বর্ধমান জেলা ইন্ডাস্ট্রিয়াল ডেভলপমেন্ট অফিসার জামুড়িয়ার সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিক যিশানু দে, জামুড়িয়া পঞ্চায়েত সমিতির সহসভাপতি রেনুকা বাউরী প্রমূখ । জেলাশাসক এস অরুণ প্রসাদ জানান জামুড়িয়া শিল্প তালুকের যাতে দ্রুততার সঙ্গে উৎকর্ষ বাংলা প্রকল্প টি শেষ করা যায় তার জন্য জামুড়িয়ার ব্যবসায়ী সংগঠন ও বিভিন্ন কারখানার আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করা হয়। সমস্ত কারখানা কর্তৃপক্ষ কে উৎকর্ষ বাংলা প্রকল্পটি দ্রুত বাস্তবায়িত করার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। জেলা পরিষদের অধ্যক্ষ তাপস চক্রবর্তী জানান জামুড়িয়া শিল্প তালুকে প্রচুর বেকার যুবক রয়েছে। তাদেরকে যথাযথ প্রশিক্ষণ দিয়ে কর্মোপযোগী দক্ষ বানিয়ে স্থানীয় কারখানার নিয়োগ করায় তাদের প্রাথমিক লক্ষ্য। জামুড়িয়ার সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিক যিশানু দে জানান 2016 সালে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির অনুপ্রেরণায় বেকার যুবক যুবতীদের জন্য এই উৎকর্ষ বাংলা প্রকল্প টি ঘোষণা করেছিলেন। এই প্রকল্পের অধীন বেকার যুবক যুবতীদের বিনামূল্যে কর্মোপযোগী দক্ষতার প্রশিক্ষণ দিয়ে বেকার যুবক যুবতীদের কর্মসংস্থান করে দেওয়াই মূল লক্ষ্য। মূলত পড়াশোনা শেষ করে বা স্কুলছুট বেকার যুবক যুবতীদের যাতে কর্মসংস্থান হয় তার জন্য এই প্রকল্প। শ্যামসেল কারখানার পক্ষে সুমিত চক্রবর্তী জানান জেলাশাসক জামুরিয়া শিল্প তালুকের কমপক্ষে 200 জনের বেশি যুবক-যুবতীদের উৎকর্ষ বাংলা প্রকল্পে প্রশিক্ষণ দেওয়ার কথা বলেছেন।তাদের কারখানা ইতিমধ্যে উৎকর্ষ বাংলা প্রকল্প পশ্চিম বর্ধমান জেলায় প্রথম স্থানে রয়েছে। ইতিমধ্যে তারা 30 জনকে কর্মোপযোগী দক্ষ শ্রমিকের প্রশিক্ষণ দিচ্ছেন এবং আগামী দিনে আরো কুড়িজনকে উৎকর্ষ বাংলা প্রকল্প প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে।

LEAVE A REPLY