সাজা পূর্ণ হওয়ার আগেই মুক্ত পুরুলিয়ার দুই বন্দী

0
47

সাথী প্রামানিক, পুরুলিয়া, ১৫ অগাষ্ট: ৯৯ জন সাজাপ্রাপ্ত বন্দিকে মুক্তি দিল রাজ্য সরকার। রাজ্যের বিভিন্ন সংশোধনাগার থেকে এই সাজাপ্রাপ্ত বন্দিরা সাজা শেষ হওয়ার আগেই মুক্তি পেলেন। আজ স্বাধীনতার ৭৫ বছর বর্ষ পূর্তি উপলক্ষে এই সিদ্ধান্ত বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা। ৯৯ জন সাজাপ্রাপ্ত বন্দির মধ্যে রয়েছেন ৫ জন মহিলা ও ৮৪ জন পুরুষ। এই বন্দিরা কোনো না কোনো অপরাধমূলক ঘটনায় দোষী সাব্যস্ত হয়ে সাজা পেয়েছিলেন। সাজা পাওয়ার পর থেকেই তাঁরা সংশোধনাগারে ছিলেন। সেখানেই তাঁদের অতিবাহিত জীবনকে ‘সংশোধন’ করেছেন । সেই তথ্য সংশোধনাগার থেকে কারা বিভাগে যাওয়ার পর রাজ্য সরকার খুশি হয়ে ওই সাজা প্রাপ্তদের মুক্তির স্বাদ দিলো। মুক্তিপ্রাপ্ত ৯৯ জনের মধ্যে পুরুলিয়ায় রয়েছে ২ জন । তাঁরা পুরুলিয়া জেলা সংশোধনাগারে রয়েছেন। তাঁরা হলেন দুই আবাসিক ভাই আনন্দ মর্দনা ও বিনোদ মর্দনা । তাঁদের বাড়ি কেন্দা থানার হরিহরপুর গ্রামে। ২০১৭ সালের ৪ জুন গ্রাম্য বিবাদকে কেন্দ্র করে মারপিটের ঘটনার মামলায় পুরুলিয়া জেলা আদালত তাঁদেরকে ৭ বছর কারাদণ্ডের আদেশ দেয়। জেলা সংশোধনারের সুপার স্বপন কুমার দাস জানান, ” তাঁরা সংশোধনাগারে নিজেদের জীবনকে ‘সংশোধন’ করায় ৫ বছর ২ মাস পর্যন্ত কারাবাস পূর্ণ-র পরেই বাকি কারাবাস থেকে মুকুব করে মূলস্রোতে ফিরিয়ে দিচ্ছে রাজ্য। এই সাজাপ্রাপ্ত দুই ভাইয়ের মুক্তির দিন সেইসঙ্গে স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে একটি বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।” এদিন পুরুলিয়া সংশোধনাগারে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের মন্ত্রী সন্ধ্যারানী টুডু। তিনি বলেন, “আমাদের সরকার রাজ্যের ৯৯ জন সাজাপ্রাপ্তদের মুক্তি দিচ্ছে। পুরুলিয়া জেলার দুই বন্দী মুক্ত হচ্ছেন। তাঁদের মূল স্রোতে ফিরতে সব ধরনের সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেব।”
জেলা সংশোধনাগার থেকে মুক্তি পাওয়া আবাসিক আনন্দ মর্দনা রাজ্য সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, “নতুন করে সংসার করব। সতর্ক থাকব কোনও রকম ঝামেলা থেকে।”

LEAVE A REPLY