দুর্গাপুরে প্রতিবেশী দুই দম্পতির ঝগড়ায় চাকুর কোপে প্রান গেল এক মহিলার

0
137

বিশেষ প্রতিনিধি,দুর্গাপুরঃ প্রতিবেশীর সঙ্গে ঝগড়ার মধ্যে এক দম্পতিকে চাকু দিয়ে কোপানোর অভিযোগ উঠল এক যুবকের বিরুদ্ধে। শুক্রবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে মুচিপাড়া ওভারব্রিজ সংলগ্ন এলাকায়। উত্তম মুর্মু ও মানি মুর্মু (৩৩) নামে ওই দম্পতিকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কিছুক্ষন পরে হাসপাতালে মৃত্যু হয় মানি মুর্মুর। ঘটনার খবর জানাজানি হতেই মলানদিঘী ফাঁড়ির পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে। অভিযুক্ত যুবক রানা সিংকে গ্রেপ্তার করে ফাঁড়িতে নিয়ে যায় পুলিশ। কাঁকসা থানার এক আধিকারিক বলেন ‘অভিযুক্ত যুবককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত করা হচ্ছে।’ স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে মুচিপাড়া ওভারব্রিজ সংলগ্ন এলাকার বাসিন্দা উত্তম মুর্মু ও তাঁর স্ত্রী মানি মুর্মুর সঙ্গে প্রতিবেশী রানা সিং ও তাঁর স্ত্রী জবা সিংএর মধ্যে অনেক দিনে ধরে বিবাদ চলছিল। নানা অজুহাতে নিজেদের মধ্যে ঝগড়া করতেন তাঁরা। শুক্রবার সকালে জবার সঙ্গে মানির ঝগড়া শুরু হয়। দু’জনের মধ্যে ঝগড়া চলাকালিন জবার স্বামী রানা একটি চাকু নিয়ে মানির পেটে কোপায়। রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে পড়ে যান মানি। খবর পেয়ে মানির স্বামী উত্তম রানার বাড়িতে গিয়ে চড়াও হয়। উত্তমের গলায় চাকু দিয়ে কোপায় রানা। দু’জনকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। আইসিইউতে ভর্তি করা হয় মানিকে। কিছুক্ষন পরে চিকিৎসকরা জানিয়ে দেন মানির মৃত্যু হয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দাদের বক্তব্য দু’জনকে কোপানোর পরে চাকু নিয়ে এলাকায় দাপিয়ে বেড়াচ্ছিল রানা সিং। পুলিশ এসে তাঁকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায়।

LEAVE A REPLY